বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১

বাড়িভাড়া আইনের ইতিহাস

আদনান ওয়াসিম
  ০৯ জানুয়ারি ২০২৪, ০০:০০

বাড়িওয়ালা এবং ভাড়াটিয়ার দ্বন্দ্ব নিরসনে উৎপত্তি হয় বাড়িভাড়া আইনের। ১৯৪২ সালে বঙ্গীয় বাড়িভাড়া আদেশ জারির আগে ১৮৮২ সালের সম্পত্তি হস্তান্তর আইনের বিধান অনুযায়ী বাড়িওয়ালা এবং ভাড়াটিয়ার দ্বন্দ্ব নিরসন হতো।

এরপর দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হওয়ার পর এ দেশে প্রতিরক্ষা আইন ও বিধিমালা জারি করা হয়। এই আইন ও বিধিমালার সুবাদে তৎকালীন সরকার ১৯৪২ সালের ফেব্রম্নয়ারি মাসের ২ তারিখে বঙ্গীয় বাড়িভাড়া আদেশ জারি করে। এটি কলকাতা ছাড়া বাংলার আর সব এলাকায় প্রযোজ্য হতো। ১৯৪৬ সাল অবধি এর কার্যকারিতা অব্যাহত থাকে।

১৯৪৬ সালে এসে ১৯৪২ সালের বঙ্গীয় বাড়িভাড়া আদেশ বাতিল করা হয়। জারি করা হয় বাড়িভাড়া আইন-১৯৪৬ (১৯৪৬ সালের ৫নং আইন)। ১৯৪৭ সালে ভারত ও পাকিস্তান নামের দু'টি পৃথক স্বাধীন রাষ্ট্র জন্ম নেওয়ার পর বাড়িভাড়া আইনটি ১৯৫১ সাল পর্যন্ত বলবৎ থাকে।

১৯৫১ সালে আইনটি বাতিল করে বাড়িভাড়া অধ্যাদেশ, ১৯৫১ জারি করা হয়, যা পরবর্তী সময়ে ১৯৫২ সালের অধ্যাদেশ দ্বারা রহিত করা হয়। ১৯৫৩ সালে জারি করা হয় পূর্ববঙ্গ বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ আইন- যা বহাল থাকে ১৯৫৫ সালের ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত। পরবর্তী সময়ে এ বিষয়ে নতুন আইন প্রণীত না হওয়ায় প্রকারান্তরে আইনটি চলমান থাকে ১৯৬১ সাল পর্যন্ত।

এরপর ১৯৬১ সালে এ সংক্রান্ত একটি আইন প্রণীত হয়ে ১৯৬২ সাল পর্যন্ত বলবৎ থাকে। বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কিত অধ্যাদেশ জারি করা হয় ১৯৬৩ সালে। এর অধীনে ১৯৬৪ সালে বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ বিধিমালা প্রণয়ন করা হয়- যা বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর এক যুগেরও বেশি সময় ধরে ১৯৮৫ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বলবৎ ছিল।

অতপর তৎকালীন প্রধান সামরিক আইন প্রশাসক এইচ এম এরশাদ কর্তৃক ১৯৮৬ সালের ২২নং অধ্যাদেশ দ্বারা বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ অধ্যাদেশ জারি করে ১৯৬৩ সালের বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ অধ্যাদেশটি বাতিল করা হয়। এর মেয়াদ ছিল তিন বছর এবং তা ১৯৮৯ সালে শেষ হয়ে যায়। তিন বছর পরে আবার বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ আইন জারি করার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়। কিন্তু ইতোপূর্বে জাতীয় সংসদ ভেঙে দেওয়া হয়। নাহলে জাতীয় সংসদে বিল আকারে উত্থাপিত হয়ে আইনটি পাস করা যেত। তাই জাতীয় সংসদের অবর্তমানে বাংলাদেশ সংবিধানের ৯৩(১) অনুচ্ছেদে বর্ণিত ক্ষমতাবলে তৎকালীন অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি বিচারপতি শাহাবুদ্দীন আহমেদ বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ অধ্যাদেশ-১৯৯১ জারি করেন। একই বছর অধ্যাদেশটি জাতীয় সংসদে উত্থাপিত হয়ে বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ আইন- ১৯৯১ (১৯৯১ সালের ৩নং আইন) হিসেবে নাম লাভ করে- যা অদ্যাবধি কার্যকর ও বলবৎ রয়েছে।

বর্তমান আইন অর্থাৎ ১৯৯১ সালের বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৪ ধারায় বিধি প্রণয়নের ক্ষমতার বিধান থাকলেও সরকার অদ্যাবধি এই আইনের অধীনে কোনো নতুন বিধি প্রণয়ন করেনি। ফলে ১৯৬৪ সালের বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ বিধিমালাই কার্যকর রয়ে গেছে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে