রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

অস্থির গরমে স্বস্তি যমুনা এসির শীতল পরশে

যাযাদি ডেস্ক
  ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৪০
আপডেট  : ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৩:০৮
ছবি-যায়যায়দিন

প্রচণ্ড গরমের দাপটে জনজীবন অতীষ্ঠ হয়ে পড়েছে। এই গরমে এখন আর ফ্যান নয়, সবাই কিনতে চাচ্ছেন এসি। এসি একসময় উচ্চবিলাসিতা হলেও এখন প্রায় অনেকের জন্যই প্রয়োজনীয়তা হয়ে পড়েছে। কিন্তু এসি তো আর চাইলেই কিনে ফেলা যায় না। এসি কেনার সময়েও অনেক ভাবতে হয়। একটি পণ্য কেনার পর তা কতটা বিদ্যুৎ খরচ করছে আর কতটা ভালো আউটপুট দিচ্ছে সেটিও ভাবনায় রাখা জরুরি। এসি কেনার সময় প্রথমেই ব্র্যান্ডের কথা ভাবতে হবে। ব্র্যান্ড জরুরি অবশ্যই। আর বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে আকর্ষণীয় ও সুভল মূলে এসি সরবরাহ করছে যমুনা। এই অস্থির গরমে আপনাকে স্বস্তি দিতে পারে একমাত্র যমুনা এসি। এখন বিশুদ্ধ বাতাসের জন্য গ্রাহকের প্রথম পছন্দ যমুনা এসি।

যমুনা এসির শীতল পরশে প্রশান্ত হয় শরীর-মন। কর্মব্যস্ততার পর ঘরে ফিরে এসির শীতল পরশে দূর হয় সব ক্লান্তি। কিংবা কর্মক্ষেত্র হয় স্বস্তির। অফিসে আপনার সঙ্গী যমুনা এসি। আপনার প্রয়োজন মত বাজারে সব সাইজের যমুনা এসি পাওয়া যায়। ঘর কিংবা অথবা গাড়ির কন্ডিশন অনুযায়ী এসি যমুনা দিচ্ছে। বিদেশের রপতানি হচ্ছে যমুনা এসি।

বাংলাদেশে এখন ঘরে কিংবা অফিসে আরামদায়ক পরিবেশ নিশ্চিত করতে ব্যবহৃত হচ্ছে যুমনা এসি। শুধু উচ্চবিত্তেরই নয়, মধ্যবিত্তদের ঘরেও এখন যমুনা এসি স্বস্তির পরশ বোলাচ্ছে। সব শ্রেণীর মানুষের জন্য বাজারে সুলভ মূল্যে যমুনা এসি পাওযা যাচ্ছে।

যমুনা এসি ব্যবহারে ঘরের অ্যাজমা-আক্রান্ত ব্যক্তির অ্যাজমা অ্যাটাক হওয়ার আশঙ্কা কমাতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারে। যমুনা এসি ঘরে অথবা অফিসে পোকামাকড় ও পরজীবীর পরিমাণ কমায়, ফলে নিত্যদিনের বিড়ম্বনা থেকে রেহাই পাওয়া যায়। এর ফিল্টারগুলো খোলা জানালার তুলনায় পোকামাকড় বাইরে রাখতে বেশি কার্যকর।

যমুনা এসির শীতল পরশ কর্মক্ষমতা উন্নত করে। তীব্র গরমে যখন কাজ করা অনেক কষ্টদায়ক হয়ে ওঠে, তখন যমুনা দেয় স্বস্তি। সৃষ্টি করে নির্বিঘ্নে কাজ করার পরিবেশ।

যমুনা এসি শীতাতপনিয়ন্ত্রণের এই যন্ত্র পানিশূন্যতা ও হিটস্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়। নিম্ন তাপমাত্রা মানে কম ঘাম। ঘামের সঙ্গে আমরা শরীরের পানি হারিয়ে ফেলি, যা থেকে ডিহাইড্রেশন বা পানিশূন্যতা তৈরি হতে পারে। যুমনা এসিতে এ ঝুঁকি এড়ানো যায়। সুস্থতায় শরীরচর্চার বিকল্প নেই।

অতিরিক্ত গরমের সময় প্রয়োজন হলে যুমনা এসি বেশিক্ষণ চালানো সম্ভব। তবে চেষ্টা করতে হবে তাপমাত্রা কমিয়ে ঘর দ্রুত ঠান্ডা করে তারপর এসি বন্ধ করে দেওয়ার।

প্রয়োজন বুঝে ঘরে বা কর্মক্ষেত্রে এসির ব্যবহারে উপভোগ্য হোক আপনার সময়। স্বস্তি ও প্রশান্তির পরশে কাটুক দিন।

রুহুল কে. সাগর, এ.জি.এম, ব্যান্ড ডেভেলপমেন্ট, যমুনা ইলেকট্রনিক্স এন্ড অটোমোবাইলস লিমিটেড। বলেন, বর্তমানে তীব্র গরমের কথা চিন্তা করে গ্রাহকদের জন্য যমুনা এসি দারুন সব অফার দিচ্ছে। আর সরবরাহও ভালো। বাজারে সব সাইজের এসি পাওয়া যাচ্ছে। তীব্র গরমের কারণে বিক্রি অনেক ভালো। তবে অফারটি সীমিত সময়ের জন্য। যারা কিনতে চান তারা দেরি না করে আজই যোগাযোগ করুন আপনার নিকটস্থ যে কোনো যমুনা প্লাজা কিংবা শোরুমে।

যমুনা_এসি তে ২৪/২৪ অফার -

# ২৪ টাকায় এসি চলবে সারাদিন।

# ২৪ মাসে ২ বার ফ্রি ক্লিনিং সার্ভিস।

# ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ফ্রি ইনস্টলেশন।

# যমুনা_এসি কিনলেই পাচ্ছেন সর্বোচ্চ ১০% ডিস্কাউন্ট।

# ১০% ডিস্কাউন্টে যমুনা_এসি কিনুনঃ

# ১ টন মাত্র ৪১,৪০০ টাকায়

# ১.৫ টন মাত্র ৫৭,৪২০ টাকায়

# ২ টন মাত্র ৬৯,১২০ টাকায়

এছাড়াও এতে আরও রয়েছে --

# অফলাইন ভয়েস কন্ট্রোল টেকনোলজি

# ১০ বছর কম্প্রেসর ওয়ারেন্টি

# ৯৯.৯৯% বিশুদ্ধ বাতাস

# ফাস্টার কুলিং

প্রোডাক্ট সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন যমুনার অনলাইন স্টোরে। বিস্তারিত জানতে ফোন করুন : ০১৩১৩-০৩৬৯০৪

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে