বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১

'পোলিশ জনগণকে আর অপমান করবেন না': পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

যাযাদি ডেস্ক
  ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৩:৪৫
আপডেট  : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৩:৫২
'পোলিশ জনগণকে আর অপমান করবেন না': পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

শস্য বিরোধের জেরে প্রতিবেশী ও বন্ধু রাষ্ট্র পোল্যান্ডের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না ইউক্রেনের। এই বিরোধের জেরে কিয়েভকে অস্ত্র সরবরাহ না করার ঘোষণা দিয়েছে ওয়ারশ। এবার ফের ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কিকে হুঁশিয়ার দিয়েছেন পোলিশ প্রধানমন্ত্রী মাতেউস মোরাউইকি। তিনি জেলেনস্কিকে উদ্দেশে করে বলেছেন, ‘আর কোনো সময় পোল্যান্ডের জনগণকে অপমান করবেন না।’ খবর আল-জাজিরার।

আজ শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) প্রকাশিত প্রতিবেদনে কাতারভিত্তিক গণমাধ্যমটি জানায়, নিউ ইয়র্কে চলা জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে প্রতিবেশি ওয়ারশের বিরুদ্ধে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেন জেলেনস্কি। এর জবাবে মাতেউস মোরাউইকি বলেন, ‘আমি...জেলেনস্কিকে বলতে চাই, আর কখনও পোলিশ জনগণকে অপমান করবেন না।’ শুক্রবার এক নির্বাচনি র‌্যালিতে তিনি এ কথা বলেন।

ইউক্রেনে রাশিয়ার পূর্ণ মাত্রায় আগ্রাসন শুরুর পর থেকেই এই শস্য বিরোধ শুরু হয়। রাশিয়া কৃষ্ণ সাগরের প্রধান শিপিং রুট বন্ধ করে দেয় এবং ইউক্রেনকে স্থলপথে বিকল্প পথ খুঁজতে বাধ্য করে। এর ফলে মধ্য ইউরোপের দেশগুলোতে প্রচুর পরিমাণ শস্য যেতে শুরু করে।

স্থানীয় কৃষকদের সুরক্ষার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়ন সাময়িকভাবে পাঁচটি দেশে শস্য আমদানি নিষিদ্ধ করে। দেশগুলো হলো– বুলগেরিয়া, হাঙ্গেরি, পোল্যান্ড, রোমানিয়া ও স্লোভাকিয়া। এ নিষেধাজ্ঞা ১৫ সেপ্টেম্বর শেষ হয় এবং ইইউ এটি নবায়ন না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে, ইইউর কথা না মেনে হাঙ্গেরি, স্লোভাকিয়া ও পোল্যান্ড নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়ন চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এদিকে, শুক্রবার পোল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট আন্দ্রজেজ দুদা বলেন, ‘শস্য নিয়ে কিয়েভ ও ওয়ারশ’র দ্বিপাক্ষীয় সম্পর্কের অবনতি হবে না। তাই আমাদের বিষয়টি সমাধান করা উচিত।’ এর আগে, গত সপ্তাহে অস্ত্র সরবরাহ না করার ঘোষণা দিয়েছে পোল্যান্ড।

যাযাদি/ এসএম

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে