শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে উত্তেজনা, যুদ্ধের আশঙ্কা বাড়ছে

যাযাদি ডেস্ক
  ১২ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৫৪
সম্প্রতি সিরিয়ায় ইরানের কনস্যুলার ভবনে হামলা চালানো হয়-ফাইল ছবি

দখলদার ইসরাইল পুরো মধ্যপ্রাচ্যকে অশান্ত করে তুলেছে। ইসরাইলের আগ্রাসী মনোভাবের কারণে পুরো মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে যুদ্ধের আশাঙ্কা দেখা দিয়েছে। বিশ্লেকদের ধারণা ইরানের সঙ্গে যদি ইসরাইলের যুদ্ধ বাধে তাহলে তা ছড়িয়ে পড়বে পুরো মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে। এমনকি এই যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়তে পারে বিশ্বজুড়ে।

এদিকে ইরানের প্রতিশোধের আশঙ্কায় পুরো মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। সম্প্রতি সিরিয়ায় ইরানের কনস্যুলেট ভবনে হামলা চালিয়ে ইরানের জেনারেলসহ বেশ কয়েকজনকে হত্যা করে ইসরায়েল। এরপর ধারাবাহিকভাবে প্রতিশোধের হুমকি দিচ্ছেন ইরানের শীর্ষ নেতারা। বলা হচ্ছে, এবার সরাসরি ইসরায়েলের ভূখণ্ডে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে তেহরান।

অন্যদিকে জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের মিশন জানিয়েছে, নিরাপত্তা পরিষদ যদি ইসরায়েলি হামালার নিন্দা জানাতো তাহলে হয়তো ইরানের প্রতিশোধমূলক হামলা এড়ানো যেতো।

পশ্চিমা গণ্যমাধ্যমের প্রতিবেদনগুলোতে দাবি করা হয়, সরাসরি ইসরায়েল অথবা ইসরায়েলের স্বার্থ রয়েছে এমন স্থাপনায় ইরানের হামলা আসন্ন। এরপরই ইরানের পক্ষ থেকে এমন বিবৃতি এলো।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা এক বার্তায় ইরানের মিশন জানায়, সিরিয়ায় ইরানের কনস্যুলেটে আগ্রাসনের নিন্দা যদি নিরাপত্তা পরিষদ করতো তাহলো হয়তো হামলার অপরিহার্যতা থেকে সরে আসা যেতো। গত ১ এপ্রিল ইসরায়েলের হামলায় ইরানের দুই জেনারেলসহ অন্তত সাতজন নিহত হন। এরপর ইসরায়েলে হামলার চূড়ান্ত অঙ্গীকার করে ইরান।

এমন উত্তেজনার মধ্যেই ইসরায়েল সফরে গেছেন মার্কিন সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান জেনারেল মাইকেল কুরিলা। কুরিলা ইসরায়েলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইওভ গ্যালান্টের সঙ্গে বৈঠক করবেন। তাদের আলোচনায় গুরুত্ব পাবে ইরানের সম্ভাব্য হামলা। গত কয়েক দিন ধরেই ইরানের প্রতিশোধমূলক হামলার ব্যাপারে ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের মধ্যে যোগাযোগ হচ্ছে। মূলত তেহরানের হামলা প্রতিহত করতে তারা উদ্বিগ্ন।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে