শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী বললেন, ইরানের সঙ্গে সংঘাত চাই না :

যাযাদি ডেস্ক
  ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২৩
ছবি সংগৃহিত

বিশ্বে এখন কয়েকটি অঞ্চলে যুদ্ধ চলছে। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ইসরাইল-গাজা। রাশিয়া-ইউক্রেন। আর যুদ্ধ বাড়াতে চায় না যুক্তরাষ্ট্র। তাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নীতি হলো তারা ইরানের সঙ্গে সংঘাতে না যাওয়া। কিন্তু ইসরাইলের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দুই পক্ষকেই যুদ্ধে উস্কানি দিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন জানিয়েছেন, ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে ইরান, ইরাক, সিরিয়া ও ইয়েমেন থেকে যে শত শত ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে তা ভূ-পাতিত করতে আমরা সাহায্য করেছি। লয়েড অস্টিন ইরানের হামলাকে বেপরোয়া ও নজিরবিহীন উল্লেখ করে এর নিন্দা করেন।

আজ রোববার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমরা ইরানের সঙ্গে কোনো সংঘাত চাইনা। তবে আমাদের সেনাদের রক্ষা ও ইসরায়েলের নিরাপত্তায় ব্যবস্থা নিতে দ্বিধা করবো না। ইসরায়েলে সরাসরি হামলায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে মিছিলি করেছে শত শত ইরানি নাগরিক। দেশটির বিভিন্ন স্থানে এই মিছিল হয়েছে।

জানা যায়, ইসরায়েলে চালানো হামলা উদযাপন করতে অনেকেই জড়ো হন তেহরানে অবস্থিত ব্রিটিশ দূতাবাসের সামনে। সেখানে বহু মানুষকে ইরানের পতাকা হাতে দেখা যায়। তাছাড়া ফিলিস্তিনিরে বড় একটি পতাকা নিয়ে অনেকেই জড়ো হন তেহরানের ফিলিস্তিন স্কয়ারে।

ইরানের ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ড কোর (আইআরজিসি) জানিয়েছে, স্থানীয় সময় শনিবার ইসরায়েলের ভূখণ্ড লক্ষ্য করে কয়েক ডজন ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে তারা।

গত ১ এপ্রিল সিরিয়ার রাজধানীতে ইরানি কনস্যুলেটে হামলায় ইরানের দুই জেনারেলসহ ১৩ জন নিহত হন। কেউ দায়ভার স্বীকার না করলেও এ হামলা ইসরায়েল চালিয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে। এ ঘটনার পরপরই ইসরায়েলের বিরুদ্ধে কঠোর প্রতিশোধ নেওয়ার হুমকি দেয় তেহরান। সূত্র: আল-জাজিরা

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে