মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

জার্মান তরুণী ইসলাম গ্রহণের পর রাখছেন রোজা

যাযাদি ডেস্ক
  ২০ মার্চ ২০২৪, ১১:২৮
ছবি-সংগৃহিত

কোরআনের একটি জার্মান সংস্করণ পড়েই তিনি ইসলাম সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করেন। জার্মানী ছেড়ে এখন দুবাইতে বসবাস করেন তিনি। এখন নিয়মিত রোজা রাখছেন। হা তার নাম ছিল মার্টিনা ওবারহোলজনার। এখন তিনি পরিচিত মরিয়ম নামে। চলতি বছরের প্রথম দিকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন ২৬ বছর বয়সী এই জার্মান তরুণী। এরপর দুবাইয়ে প্রথমবারের মতো রমজান পালন করছেন। পবিত্র কোরআনের একটি জার্মান সংস্করণ পড়ার পর মরিয়ম ইসলামে শান্তি খুঁজে পান।

দুবাইভিত্তিক সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস জানিয়েছে, মরিয়ম পেশায় মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ। খ্রিস্টান পরিবারে বড় হলেও তিনি সবসময় ইসলামের প্রতি আকৃষ্ট ছিলেন। শালীন পোশাক পরতেন। তিনি বলেন, জানুয়ারিতে আমি দুবাইয়ের একটি ইসলামিক ইনফরমেশন সেন্টারে যাই। আনুষ্ঠানিকভাবে কালেমায়ে শাহাদাত পাঠ করি।

১৪ বছর বয়সে নিজ শহর মিউনিখের একটি মসজিদে গিয়েছিলেন কিশোরী মরিয়ম। সেখানে তাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানো হয়েছিল এবং তিনি অভিভূত হয়েছিলেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তার মুসলিম বন্ধুবান্ধব হয়েছে। তাদের নিয়ে মরিয়ম বলেন, তারা দয়ালু এবং সাহায্য করতে পছন্দ করে, যা আমার ইসলাম গ্রহণের অন্যতম প্রধান কারণ।

গত বছর দুবাইয়ে চাকরি পান মরিয়ম। সেই চাকরি তাকে সন্তুষ্ট হতে না পারলেও দুবাইয়ে গিয়েই তিনি ইসলামকে গভীরভাবে জানার সুযোগ পান। ২০২৩ সালের মাঝামাঝি কয়েক সপ্তাহের জন্য ইন্দোনেশিয়ায় গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে ইসলামিক সংস্কৃতির মাঝে নিজেকে খুঁজে পান।

এরপর নিজের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গত আগস্টে জার্মানিতে গেলেও দুবাইয়ে কথা তার মাথায় গেঁথে ছিল। ফলে আবারও সেখানে চাকরির জন্য আবেদন করেন এবং ভালো সুযোগও পেয়ে যান। ওই বছরের অক্টোবরে দুবাই ফিরে আসেন মরিয়ম। এ সময় প্রথমবার পবিত্র কোরআন পড়তে শুরু করেন তিনি।

মরিয়ম বলেন, আমি সেই অনুভূতি প্রকাশ করতে পারব না। মাত্র ৫০ পৃষ্ঠা পড়ার পরই বুঝতে পারি আমি ইসলাম গ্রহণ করতে চাই। বর্তমানে তিনি ইসলাম সম্পর্কে গভীরভাবে জানার পাশাপাশি রমজানের নিয়ম-কানুন মেনে চলার চেষ্টা করছেন।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে