শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১

দখলমুক্ত সেই ঐতিহাসিক মসজিদ উদ্বোধন 

যাযাদি ডেস্ক
  ১৯ মে ২০২৪, ১৪:৫৯
ছবি-সংগৃহিত

আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে ৮০ দশকে প্রথম এবং ৯০ দশকে দ্বিতীয় দফা যুদ্ধ হয়। সেই যুদ্ধের সময় আজারবাইজানের কিছু অঞ্চল আর্মেনিয়া দখল করে নেয়। ২০২০ সালে আবার তৃতীয় দফা যুদ্ধ হয়। এই যুদ্ধে আজারবাইজান একতরফাভাবে জল লাভ করে। ফলে আজারবাইজান তাদের হারানো অঞ্চলে ফিরে পায়। পূর্ণদখলের আগে আর্মেনিয়া অনেক মসজিদ ধ্বংস করে ফেলে।

এদিকে কারাবাখ অঞ্চলে আর্মেনিয়ার কাছ থেকে উদ্ধার করা উনবিংশ শতাব্দীর ঐতিহাসিক জানজিলান মসজিদটি সংস্কারের পর উদ্বোধন করলেন আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহান আলীয়েভ। দীর্ঘদিন ধরে এটি আর্মেনিয়ার দখলে ছিল। এ সময় নান্দনিক স্থাপত্যকলার ঐতিহাসিক এ মসজিদটির ৭০ শতাংশ অবকাঠামো নষ্ট করে ফেলা হয়। খবর আনাদোলুর। জানা যায়, ২০২০ সালে দ্বিতীয় কারাবাখ যুদ্ধে আর্মেনিয়ার দখলমুক্ত হয় জানজিলান অঞ্চল। এরপর ২০২১ সালের ২৬ এপ্রিল এ মসজিদের সংস্কার কাজ উদ্বোধন করেন আলীয়েভ।তবে মসজিদটির পুনর্নির্মান কাজেও পুনরুজ্জীবিত করা হয়েছে কারাবাখের ধর্ম, সাংস্কৃতি ও ঐহিত্যকে।

মসজিদটির উদ্বোধন উপলক্ষ্যে একটি প্রদর্শনীরও আয়োজন করা হয়েছে মসজিদ প্রঙ্গণে। মসজিদটি উদ্বোধনের পর আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট আরও বেশ কয়েকটি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন ওই অঞ্চলে।

এতিহাসিক এ মসজিদটিতে পর্যটকরা যাতে সহজে যাতায়াত করতে পারে এ জন্য নতুন রাস্তাঘাটসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নেন আলীয়েভ।

আরও জানা যায়, আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে অবস্থিত নাগরনো-কারাবাখ ছিটমহল নিয়ে নিয়ে দুই দেশের মধ্যে ১৯৮০ এবং ১৯৯০ এর দশকে বড় আকারে যুদ্ধ হয়েছে। সর্বশেষ ২০২০ সালে তৃতীয় দফায় দুই দেশ মধ্যে ছয় সপ্তাহ ধরে এক যুদ্ধে কারাবাখের নিয়ন্ত্রণ আজারবাইজানের কাছে চলে আসে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে