তৃণমূল-বিজেপি লড়াই

পশ্চিমবঙ্গে চতুর্থ দফার ভোটের আগে প্রতিশ্রম্নতির ফুলঝুরি

ভোটপ্রচারে যেতে পারেন রাহুল গান্ধীও
পশ্চিমবঙ্গে চতুর্থ দফার ভোটের আগে প্রতিশ্রম্নতির ফুলঝুরি

রাত পোহালেই (শনিবার) ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার চতুর্থ দফার ভোট। এর আগে শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় প্রধান দুই প্রতিপক্ষ রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল ও কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন বিজেপির কথার লড়াই ছিল তুঙ্গে। একদিকে জনসভাগুলোতে প্রতিশ্রম্নতির ফুলঝুরি ফুটিয়েছেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্যদিকে, বিজেপিও পিছিয়ে নেই। উত্তরপ্রদেশ থেকে উড়ে এসে প্রতিশ্রম্নতির ফিরিস্তি দিয়েছেন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা যোগী আদিত্যনাথ। সংবাদসূত্র : এনডিটিভি, এবিপি নিউজ

কলকাতায় ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো তৈরির নেপথ্যের কারিগর মমতা। রেলমন্ত্রী থাকাকালীন প্রস্তাব পাস করিয়ে কাজে গতি আনার মরিয়া চেষ্টা করেছিলেন তিনি। তার সেই প্রচেষ্টা সাফল্যের মুখ দেখেছে। বেহালার দুই বিধানসভা কেন্দ্রে ভোটপ্রচারে এই মেট্রোকেই এবার হাতিয়ার করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। বেহালার জনসভা থেকে তার প্রতিশ্রম্নতি, 'আমি থাকলে এই জায়গায় এক বছরে মেট্রো করে দিতাম। আমি ভবিষ্যৎটা জানতাম। এবার জোকা থেকে ডায়মন্ড হারবার পর্যন্ত মেট্রো করে দেবো। আমি জানি, কীভাবে কাজ করতে হয়।'

আগামীকাল দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ১৫টি আসনের মধ্যে ভোট হবে বেহালার দুই আসন-বেহালা পূর্ব ও বেহালা পশ্চিমে। এর আগে বৃহস্পতিবার শেষ জনসভায় বক্তব্য রাখেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দুই প্রার্থী রত্না চট্টোপাধ্যায় ও পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সমর্থনে জনসমর্থন টানতে গিয়ে বেহালার সামগ্রিক পরিস্থিতির কথা উলেস্নখ করেন তিনি। মমতা বলেন, 'বেহালার বেহালদশা ছিল। আমরা এর উন্নতি ঘটিয়েছি। যোগাযোগব্যবস্থা, সড়কপথ, নিকাশী ব্যবস্থার উন্নয়ন হয়েছে এখানে। আগামী দিনে এখানে পানির সমস্যাও থাকবে না।'

অন্যদিকে, বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় এলে কী কী করা হবে, এর ফিরিস্তি দিয়েছেন রাজ্যটিতে সফরে আসা উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। হুগলি জেলার চাঁপদানি বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী দিলীপ সিংয়ের সমর্থনে বৈদ্যবাটির ডিএস পার্ক মাঠে বৃহস্পতিবার জনসভায় তিনি বলেন, বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় এলে 'অ্যান্টি রোমিও স্কোয়াড' তৈরি করা হবে। এ ছাড়া মেয়েদের পড়াশোনার জন্য বিজেপি সরকার কী কী সুবিধা দেবে, সে বিষয়েও জানিয়েছেন যোগী। বলেন, 'কেজি থেকে পিজি পর্যন্ত মেয়েদের পড়াশোনা বিনামূল্যে হবে। মেয়েদের জন্য গণপরিবহণেও কোনো খরচ লাগবে না।' যোগী বলেন, 'বাচ্চা মেয়েদের স্কুলের সামনে যেসব গুন্ডারা ঘুরে বেড়ায়, তাদের জন্য স্কুলের বাইরে ঘুরবে 'অ্যান্টি রোমিও স্কোয়াড'।'

ভোটপ্রচারে পশ্চিমবঙ্গে যেতে পারেন রাহুল গান্ধীও

এদিকে, কংগ্রেসের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব পশ্চিমবঙ্গের ভোটপ্রচারে যথাসময় আসবেন বলে বুধবার জানিয়েছিলেন দলের রাজ্য সভাপতি অধীর চৌধুরী। এর একদিন পর বৃহস্পতিবার কংগ্রেস সূত্রে জানা যায়, রাজ্যে শেষ দুই দফার ভোটের প্রচারে যেতে পারেন খোদ রাহুল গান্ধী। তবে দিনক্ষণ এখনো চূড়ান্ত হয়নি বলেই ওই সূত্র জানিয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে