তিন প্রস্তাবের অনুমোদন

সড়ক ও মহাসড়কের উন্নয়ন নিশ্চিত হোক
তিন প্রস্তাবের অনুমোদন

একটি দেশের সামগ্রিক সমৃদ্ধি অর্জন এবং অগ্রগতির প্রশ্নে সড়ক ও মহাসড়কের উন্নয়ন জরুরি। এছাড়া এ কথা বলার অপেক্ষা রাখে না যে, দেশে প্রতিনিয়তই ঘটে চলেছে সড়ক দুর্ঘটনা। এ ক্ষেত্রে বলা দরকার, দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে অনেক সময় সড়ক খানাখন্দে ভরা, সড়কের বেহাল দশা এমন বিষয় উঠে এসেছে। ফলে সড়ক মহাসড়ক উন্নয়নের বিষয়টি আমলে নেওয়া জরুরি। সম্প্রতি পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত খবরে জানা গেল সড়ক ও মহাসড়কের উন্নয়নে তিনটি পৃথক প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। এতে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৯৯৮ কোটি ৬০ লাখ ৭৩ হাজার ৬৩৯ টাকা। বুধবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ভার্চুয়াল সভায় ক্রয় প্রস্তাবগুলো অনুমোদন দেওয়া হয়।

জানা গেছে, 'সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক বিভাগের অধীন সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর কর্তৃক 'শরীয়তপুর (মনোহর বাজার)-ইব্রাহিমপুর ফেরিঘাট পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন' প্রকল্পের প্যাকেজ নং-ডবিস্নউপি-২ এর পূর্ত কাজের অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। প্রকল্পে ব্যয় হবে ১০৩ কোটি ৩৭ লাখ ৪৪ হাজার ৩৬ টাকা। সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক বিভাগের অধীন সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর কর্তৃক 'শরীয়তপুর (মনোহর বাজার)-ইব্রাহিমপুর ফেরিঘাট পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন' প্রকল্পের প্যাকেজ নং-ডবিস্নউপি-০৩ এর পূর্ত কাজের এ প্রকল্পে ব্যয় হবে ১০৬ কোটি ৮৪ লাখ ৭০ হাজার ৯১৫ টাকা। এছাড়া 'সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক বিভাগের অধীন সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর কর্তৃক 'আশুগঞ্জ নদীবন্দর-সরাইল-ধরখার-আখাউড়া স্থলবন্দর মহাসড়ক চার লেনে জাতীয় মহাসড়কে উন্নীতকরণ' প্রকল্পের প্যাকেজ নং ডবিস্নউপি-০৩ এর পূর্ত কাজ সম্পাদন এবং রক্ষণাবেক্ষণ কাজে ব্যয় হবে ৭৮৮ কোটি ৩৮ লাখ ৫৮ হাজার ৬৮৮ টাকা।

আমরা বলতে চাই, এসব প্রকল্পর সুষ্ঠু বাস্তবায়ন হোক এবং যথাযথ ব্যবস্থাপনার মধ্য দিয়ে সঠিক সময়ে কাজ শেষ। কেননা, এ কথাও বলার অপেক্ষা রাখে না যে, বিভিন্ন সময়েই প্রকল্প বাস্তবায়নে ধীরগতিসহ নানা ধরনের অভিযোগ উঠে আসে- যা অত্যন্ত উদ্বেগের। কারণ প্রকল্প বাস্তবায়ন নির্দিষ্ট সময়ে না হলে ব্যয়ও বেড়ে যায়। সঙ্গত কারণেই সামগ্রিক বিষয়গুলো আমলে নিয়ে সংশ্লিষ্টরা সব ধরনের উদ্যোগ জারি রাখবে এবং যথার্থ বাস্তবায়নে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা বজায় রাখবেন এমনটি কাম্য।

আমরা বলতে চাই, দেশে যেভাবে একের পর এক সড়ক মহাড়কে দুর্ঘটনা ঘটছে তার ভয়াবহতা এড়ানোর কোনো সুযোগ নেই। পত্রপত্রিকার পাতা উল্টালেই সড়ক দুর্ঘটনার চিত্র সামনে আসে। প্রতিনিয়ত না ফেরার দেশ চলে যাচ্ছে একেকটি তরতাজা প্রাণ। ফলে সড়ক মহাসড়ক উন্নয়নে যেমন সর্বাত্মক উদ্যোগ নিতে হবে, তেমনি সংশ্লিষ্টদের কর্তব্য হওয়া দরকার, সড়ক মহাসড়কের নিরাপত্তার দিকেও জোর দেওয়া। এবারের প্রকল্পগুলোর যথাযথ বাস্তবায়ন নিশ্চিত করার পাশাপাশি সারা দেশের সড়ক মহাসড়ক পরিস্থিতি আমলে নিয়ে সর্বাত্মক পদক্ষেপ অব্যাহত থাকবে এমনটিও প্রত্যাশিত।

সর্বোপরি আমরা বলতে চাই, সড়ক ও মহাসড়কের উন্নয়নে তিনটি পৃথক প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি- এর যথাযথ বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্টদের যথাযথ তৎপরতা জারি রাখতে হবে। একইসঙ্গে সারাদেশের সড়ক মহাসড়ক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ সাপেক্ষে উন্নয়ন ও নিরাপত্তার বিষয়টি আমলে নিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সর্বাত্মক প্রচেষ্টা জারি রাখবে এমনটি কাম্য।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে