নিখোঁজের দুই বছর পর বস্তাবন্দি কঙ্কাল উদ্ধার

নিখোঁজের দুই বছর পর বস্তাবন্দি কঙ্কাল উদ্ধার

রাজনৈতিক, গ্রাম্য কোন্দল ও মাদকসহ ধারাবাহিক অপরাধ কর্মকান্ডে আলোচিত বাগেরহাটের মোলস্নাহাট উপজেলায় নিখোঁজের দুই বছর পর রানা শরীফ (২৩) নামে এক যুবকের বস্তাবন্দি কঙ্কাল উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার শাসন গ্রামের একটি বাঁশ বাগানের মধ্য থেকে এ কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়।

নিহত রানা শরীফ ওই গ্রামের শরীফ আহম্মেদ ওরফে বাচ্চু শরীফের ছেলে। দুই বছর আগে সে নিখোঁজ হয়। তাকে হত্যার পর বস্তাবন্দি করে ওই বাঁশ বাগানে পুঁতে রাখা হয়েছিল বলে পুলিশ জানায়।

মোলস্নাহাট থানার ওসি সোমেন দাশ জানান, ২০২০ সালের ২০ সেপ্টেম্বর রানা শরীফ নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় রানার পিতা মোলস্নাহাট থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। ওই ডায়েরির সূত্র ধরে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় অনুসন্ধানে শাসন গ্রামের এনামুল ফকিরের ছেলে রুহুল আমিন ফকির (২২) ও হেদায়েত চৌধুরীর ছেলে শহীদুল চৌধুরীকে (৩০) গত বুধবার আটক করা হয়। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে রুহুল আমিন ও শহীদুল প্রাথমিকভাবে জানায়, তারা মোট ৫ জনে মিলে একই গ্রামের মিরাজ চৌধুরীর বাড়িতে রানাকে হত্যার পর লাশ বস্তাবন্দি করেন। এরপর ওই এলাকার নির্জন একটি বাঁশ বাগানে পুঁতে রাখে। পরে রুহুল আমিন ও শহীদুলকে সঙ্গে নিয়ে তাদের দেখানো স্থান ওই গ্রামের আসাদ শেখের বাঁশ বাগানে মাটি খুঁড়ে বস্তাবন্দি অবস্থায় রানা শরীফের কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়। এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় জিডির বরাতে এখন হত্যা মামলা রেকর্ড হবে। বাকি আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। উদ্ধার হওয়া কঙ্কালের মেডিকেল পরীক্ষা করা হবে। এদিকে নিহত রানা শরীফের পিতা শরীফ আহম্মেদ বাচ্চু জানান, তার ছেলের কাছে থাকা টাকা ছিনিয়ে নিয়ে নির্মমভাবে হত্যার পর লাশ গুম করে রাখে খুনিরা। তিনি ছেলের খুনিদের ফাঁসি চান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে