বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯
walton1

চকরিয়ায় মাতামুহুরী নদীর চর কেটে বালু লুট

ভাঙনের হুমকিতে মানিকপুরের শতাধিক বসতি
চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি
  ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০০:০০

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার মানিকপুরে মাতামুহুরী নদীর জেগে ওঠা চর কেটে বালু লুটের মহোৎসব চলছে। পাশাপাশি নদীতে অবৈধভাবে শ্যালোমেশিন বসিয়ে উত্তোলন করা হচ্ছে বালু। অভিযোগ উঠেছে, মাতামুহুরী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে জড়িত রয়েছেন স্থানীয় প্রভাবশালী এক ব্যক্তি। স্থানীয়দের দাবি, বালু উত্তোলনে কক্সবাজার জেলা অথবা চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনের বৈধ অনুমতি না থাকলেও শুধু পেশিশক্তির দাপট দেখিয়ে অভিযুক্ত ব্যক্তি বেশকিছু দিন ধরে মাতামুহুরী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু লুটের মহোৎসব শুরু করেছেন। তিনি শক্তিশালী স্কেভেটর গাড়ি দিয়ে নদীতে জেগে ওঠা চর কেটে বালু উত্তোলনপূর্বক প্রতিদিন ১৫-২০টি ডাম্পার ট্রাকে অন্যত্র বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন। নদীর জেগে ওঠা চর কেটে ও নদীতে শ্যালো মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের কারণে তীরবর্তী এলাকার জনবসতি হুমকির মুখে পড়েছে। এভাবে বালু উত্তোলন অব্যাহত থাকলে আগামী বর্ষাকালে মানিকপুর ১নং ওয়ার্ডের উত্তরপাড়া এলাকার অন্তত ৩ শতাধিক বসতবাড়ি ও বিপুল আবাদিজমি নদীতে বিলীন হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা স্থানীয়দের। জেলা প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া খাস খতিয়ানের সরকারি মালিকানাধীন মাতামুহুরী নদীতে জেগে ওঠা চর কেটে বালু উত্তোলনের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত সুরাজপুর মানিকপুর ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার জাহেদুল ইসলাম সিকদার। তিনি বলেন, 'মাতামুহুরী নদীতে জেগে ওঠা চর আমার বাপের জমি। আমি বাবার জমিতে জেগে ওঠা চর কেটে বালু উত্তোলন করছি। এখানে সরকারি খাস খতিয়ানের মালিকানাধীন কোনো জমি নেই। আর আমার জমি থেকে আমি বালু উত্তোলন করব, সেখানে প্রশাসনের অনুমতি নিতে হবে কেন।'

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে