মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
ফেসবুকে পুঁজিবাজার নিয়ে গুজব

আটক ব্যক্তির রিমান্ড

অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক
  ২২ মার্চ ২০২৩, ০০:০০
আটক ব্যক্তির রিমান্ড

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পুঁজিবাজার সম্পর্কিত মিথ্যা তথ্য ও গুজব প্রচার করে বিনিয়োগকারীদের বিভ্রান্ত করার অভিযোগে আটক মো. আবু রমিম নামে এক ব্যক্তির একদিন রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত।

মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুব আহমেদ রিমান্ডের এ আদেশ দেন।

ডিবি পুলিশের সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম ডিভিশনের (উত্তর) পরিদর্শক মো. দাউদ হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বিএসইসির মামলা করার পর থেকে তিনি পলাতক ছিলেন। পরবর্তী সময়ে তিনি ২০২২ সালের ২৩ নভেম্বর উচ্চ আদালতে হাজির হন এবং তিন সপ্তাহের জামিন পান। পরবর্তী সময়ে তিনি চলতি বছরের ১২ মার্চ নিম্ন আদালতে হাজিরা দিতে আসেন। কিন্তু আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান। এরপর আদালত থেকে আদেশ হাতে পায় ও রিমান্ড আবেদন করেন। সে পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার আদালত একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। বুধবার তাকে রিমান্ডে নেওয়া হবে।

বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, সামাজিক যোগাযোগর মাধ্যমে পুঁজিবাজার সম্পর্কিত মিথ্যা তথ্য প্রচার করে সাধারণ জনগণের মাঝে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতেন আবু রমিম। তিনি 'বিডি স্টকস ডিসকাশন (যঃঃঢ়ং://িি.িভধপবনড়ড়শ.পড়স/নফংঃড়পশংফরংপঁংংরড়হ)' পেজ থেকে মিথ্যা তথ্য প্রচার করছিলেন বলে বিএসইসির অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে। ওই অনুসন্ধান রিপোর্ট ও তথ্য পর্যালোচনা করে বিএসইসির পক্ষ থেকে গত বছরের ২০ নভেম্বর রাজধানীর শেরেবাংলানগর থানায় একটি মামলা করা হয়। ওই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে অভিযুক্ত রমিমকে গত ১৯ মার্চ আটক করেন ডিবি পুলিশের সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম ডিভিশনের (উত্তর) ইন্সপেক্টর মো. দাউদ হোসেন।

বিএসইসির করা মামলা সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে মো. আবু রমিম চট্টগ্রাম শহরের পাঁচলাইশ থানার ১১/বি বেভারলী হিল, চকবাজারে থাকেন। তার গ্রামের বাড়ি ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলায়। তিনি ফেসবুক পেজ 'বিডি স্টকস ডিসকাশন (যঃঃঢ়ং://িি.িভধপবনড়ড়শ.পড়স/নফংঃড়পশংফরংপঁংংরড়হ)' এর মডারেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করতেন। তিনি পুঁজিবাজারের স্থিতিশীলতা নষ্ট করা বা বিনিয়োগকারীদের প্রতারিত করার উদ্দেশে তার পরিচালিত ফেসবুক পেজে বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা, কাল্পনিক ও বিভ্রান্তিমূলক তথ্য পোস্ট করতেন।

বিএসইসি মনে করে, অভিযুক্ত ব্যক্তি তথা মো. আবু রমিম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পুঁজিবাজার সম্পর্কিত মিথ্যা তথ্য প্রচার করে সাধারণ জনগণের মাঝে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছেন। তিনি বেআইনিভাবে লাভবান হওয়ার উদ্দেশে উলিস্নখিত কার্যকলাপের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের প্ররোচনা ও প্রলুব্ধ করে আসছেন। এরূপ কার্যকলাপের মাধ্যমে অভিযুক্ত ব্যক্তি পুঁজিবাজারকে প্রভাবিত করার মাধ্যমে বেআইনি কার্যকলাপ সাধন করছেন, যা পুঁজিবাজার তথা বিনিয়োগকারী এবং সার্বিকভাবে রাষ্ট্রের স্বার্থবিরোধী কার্যক্রম বটে।

পুঁজিবাজারে একটি চক্র বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অভিনব উপায়ে বাজারে অস্থিরতা সৃষ্টি করতে লিপ্ত রয়েছে। তারা পুঁজিবাজারকে প্রভাবিত করার মাধ্যমে ও স্বীয় অসদুদ্দেশ্য চরিতার্থ করার বিভিন্ন অপকর্ম করছে। এক্ষেত্রে অভিযুক্ত আবু রমিম উলিস্নখিত ফেসবুক পোস্ট ব্যবহার করে পুঁজিবাজার সংক্রান্ত বিভিন্ন গুজব সৃষ্টির মাধ্যমে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের প্ররোচনার মাধ্যমে প্রতারণার জালে ফেলছে। এ ধরনের প্রতারণামূলক কার্যক্রম কেবলমাত্র ফৌজদারি অপরাধই না, এর সঙ্গে পুঁজিবাজারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আস্থা ও স্থিতিশীলতা বিনষ্টের উপাদান রয়েছে বলে মনে করে বিএসইসি।

এ বিষয়ে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ রেজাউল করিম রাইজিংবিডিকে বলেন, 'ফেসবুকে পুঁজিবাজার সম্পর্কিত মিথ্যা তথ্য প্রচার করার অভিযোগে বিএসইসির পক্ষ থেকে মো. আবু রমিমের বিরুদ্ধে মামলার এজাহার করা হয়েছে। এখন আইনানুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে