বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

চিতলমারীতে ভুলেভরা জাতীয় পরিচয়পত্র ভোগান্তীতে সাধারণ মানুষ

চিতলমারী (বাগেরহাট) প্রতিনিধি
  ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৭:০৭

বয়সের ভারে নুঁয়ে পড়েছেন ৭৫ বছর বয়সী নারায়ণ বৈরাগী। বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের বাসিন্দা তিনি। দরিদ্র পরিবারের লোক হওয়ায় একটি বয়স্ক ভাতার জন্য গত দুবছর ধরে অফিসের বারান্দায় ঘুরছেন। শুধু জাতীয় পরিচয়পত্রে বয়স ৭৫ এর স্থানে ৫২ বছর লেখার কারণে  ভাতা আটকে আছে তার। তার মতো এমন অসখ্য মানুষের জাতীয় পরিচয়পত্রে ভুল হওয়ার কারণে দিনের পর দিন ভুল সংশোধনের জন্য নির্বাচন অফিসে ভিড় করছেন। বিষয়টি দ্রুত সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগীরা।

স্থানীয়ারা জানান, চিতলমারী উপজেলার অনেকের জাতীয় পরিচয়পত্রে নামের বানান ভুলসহ পদবী, বয়সের ব্যবধান, ঠিকানাসহ নানাবিধ ভুল লেখা হয়েছে। পরিচয়পত্রে এমন ভুলজনিত কারণে সীমাহীন ভোগান্তীতে পড়েছে তারা। এসব লোকজনের অভিযোগ ভুল সংশোধনের জন্য বিভিন্ন কাগজপত্র যোগাড় করতে নানা রকম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে।

এছাড়া বছরের পর বছর ঘুরেও কেউ কেউ পরিচয়পত্রের ভুল সংশোধন করতে না পারায় তাদের চাকরীর আবেদন কিংবা বিদেশযাত্রাসহ গুরুত্বপূর্ণ কাজ আটকে আছে। অবস্থায় বিষয়টি সংশোধনের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন তারা।

উপজেলার শিবপুর গ্রামের ইলিয়াচ শেখ জানান, তার জন্ম নিবন্ধে মার্চ ১৯৬৩ সাল লেখা আছে  কিন্তু জাতীয় পরিচয়পত্রে মার্চ ১৯৭০ সাল লেখা হয়েছে। ভুলের কারণে তার ছেলের পাসপোর্টে সমস্যা হচ্ছে। তিনি ভুল সংশোধনের জন্য দীর্ঘদিন ধরে নির্বাচন অফিসে ঘুরছেন বলে অভিযোগ তোলেন।  এছাড়া শ্রীরামপুর গ্রামের পবিত্র ভক্ত জানায়, তার গ্রামের নাম শ্রীরামপুরের স্থানে শ্রীরমপুর লেখা হয়েছে। সমস্যা সমাধানের জন্য দিনের পর দিন বিভিন্ন অফিছে ঘুরতে হচ্ছে বলে অভিযোগ তার। জাতীয় পরিচয়পত্রে ভুলের কারণে অসংখ্য মানুষ এখন চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

বিষয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসার রাজিবুল হাসান জানান, তিনি অফিসে যোগদানের পর বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখছেন। জাতীয় সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিমত দেন তিনি।

 যাযাদি/মনিরুল

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে