বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯
walton1

আখাউড়ায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি
  ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১৪:০১

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে অন্তর রায় (২২) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছে। সে আখাউড়া পৌরশহরের রাধানগরের সাহা পাড়ার পল্টু রায়ের ছেলে। নিহত অন্তর রায় চলতি বছর এইচএসসি পাস করে  বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য প্রস্ততি নিচ্ছিল। সে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিল। পৌরশহরের ৭নং ওয়ার্ডের ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন। খবর পেয়ে বুধবার সকালে নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গামছা প্যাচিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মৃত্যুদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

এর আগে মঙ্গলবার দিনগত বুধবার রাত ১টা ৪৯ মিনিটে তার ফেসবুক আইডি থেকে হতাশা প্রকাশ আবেগঘন একটি স্ট্যাটাস দেয়। স্ট্যাটাসে সে লিখে ‘জীবনটাকে অনেক সুন্দরভাবে গুছাইতে চাইছিলাম কিন্তু মনের মানুষকে না পাওয়া, ব্যর্থতা, আপন মানুষগুলোর ভুল বুঝা, চাপা, নিজের সম্মানে দাগ লাগা সব মিলিয়ে আমি আর টিকে থাকতে পারলাম না। মা-বাবা, বন্ধু-বান্ধব, প্রিয় মানুষ ভাই-বোন আত্মীয় স্বজন, যদি আমি কোন ভুল করে থাকি তাহলে আমাকে মাফ করে দিবেন। এই পৃথিবী আমাকে বাঁচতে দিল না। আমার মৃত্যুর জন্য কেউ  দায়ী নয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে। নিহতের পরিবার ও পুলিশের ধারণা প্রেমঘটিত কারণে সে আত্মহত্যা করেছে। 

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার রাতের খাবার শেষে তার রুমে দরজা বন্ধ করে ঘুমাতে যায়। সকাল ৮টা পর্যন্ত ঘুম থেকে জেগে না উঠায় পরিবারের লোকজন তাকে ডাকাডাকি করে। কিন্তু তার কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে এক পর্যায়ে ধাক্কা দিয়ে দরজা খোলে তাকে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।
 
উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাব উদ্দিন বেগ শাপলু জানায় সে ৭নং ওয়ার্ডের ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী ছিল। 

আখাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আসাদুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর পাঠিয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে প্রেমঘটিত ঘটনায় সে আত্মহত্যা করেছে। 

যাযাদি/সাইফুল

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে