রোববার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

শেরপুর নারী ফুটবল দল ৮-০ গোলে হেরেছে

শেরপুর প্রতিনিধি
  ০২ অক্টোবর ২০২৩, ০৯:৫০
শেরপুর নারী ফুটবল দল ৮-০ গোলে হেরেছে

বৃহত্তর ময়মনসিংহ ফুটবল প্রতিযোগিতা ২০২৩-এর নারী দলের উদ্বোধনী খেলায় স্বাগতিক শেরপুরের বিপক্ষে ৮-০ গোলের বড় জয় পেয়েছে ময়মনসিংহ জেলা দল।

১ অক্টোবর রবিবার বিকেলে শেরপুর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়ামে খেলাটি অনুষ্ঠিত হয়। খেলার প্রথমার্ধেই ময়মনসিংহের মেয়েরা ৪-০ গোলে এগিয়ে ছিলো। বিরতির পর আরও ৪ গোল হজম করে স্বাগতিক মেয়েরা। খেলায় ময়মনসিংহ দলের মিডফিল্ডার ১০ নং জার্সিধারি সেলিমা বেগম এবং ১১ নং জার্সিধারি স্ট্রাইকার ইলা হ্যাট্রিক করেন।

এছাড়া দলের পক্ষে ৩ নং জার্সিধারি তানিয়া এবং ৬ নং জার্সিধারি তৃষ্ণা অপর গোল দু’টি করেন। হ্যাট্রিক ওম্যান সেলিমা ‘বেষ্ট প্লেয়ার অব দি ম্যাচ’ পুরষ্কার লাভ করেন।

এর আগে প্রতিযোগিতার শেরপুর ভেন্যুর খেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক সিনিয়র সচিব ও ঢাকাস্থ শেরপুর জেলা সমিতির সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম।

জেলা প্রশাসক আব্দুল্লাহ আল খায়রুমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন, ফুটবল টুর্নামেন্টের আহ্বায়ক প্রকৌশলী মো. হাফিজুর রহমান মুন্সী ও বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমন্বয় পরিষদের মহাসচিব রাশেদুল হাসান শেলী।

খেলা শেষে অতিথিবৃন্দ দুই দলের খেলোয়াড়দের সাথে পরিচিত হন। খেলা শেষে প্রধান অতিথি সাবেক সচিব মো. নজরুল ইসলাম ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়ের হাতে পুরষ্কারের ট্রফি তুলে দেন। ওইসময় সদর উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মানিক দত্ত, জেলা ক্রীড়া কর্মকর্তা ধীরেন্দ্র চন্দ্র সরকারসহ শেরপুর, জামালপুর, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, টাঙ্গাইল ও কিশোরগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তা ও ক্রীড়া সংগঠকরা উপস্থিত ছিলেন। বিপুল সংখ্যক দর্শক খেলাটি উপভোগ করেন। ময়মনসিংহের পেশাগত দলের কাছে শেরপুরের নবীন মেয়েরা বড় ব্যবধানে পরাজিত হলেও স্থানীয় দর্শকরা উভয় দলকেই তালি দিয়ে উৎসাহিত করতে কার্পণ্য করেননি।

উল্লেখ্য, বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমিতি, ঢাকা ও বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমন্বয় পরিষদ-এর যৌথভাবে এ ফুটবল প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে।

এতে বৃহত্তর ময়মনসিংহের ৬টি জেলার (শেরপুর, জামালপুর, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, টাঙ্গাইল ও কিশোরগঞ্জ) নারী ও পুরুষ দল পৃথক পৃথকভাবে দু’টি গ্রুপে ভাগ হয়ে ৬ জেলার ভেন্যুতে রাউন্ড রবীন লীগ ভিত্তিতে এ ফুটবল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছে।

এ প্রতিযোগিতা বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলের ক্রীড়া ও সংস্কৃতির বিকাশ ও উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে