বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০
walton

কুতুবদিয়ায় স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম, মামলা চাপা দিতে নিজ ঘরে আগুন 

কুতুবদিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি
  ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৭:৪৫

কুতুবদিয়ায় বসতভিটার সীমানার বিরোধে জের ধরে গত ২৭ নভেম্বর স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনার মামলা চাপা দিতে উল্টো আসামিরা নিজ ঘরে আগুন লাগিয়ে মিথ্যা মামলার পায়তারা করছে বলে অভিযোগ মামলার বাদীর পরিবারের। এ কারণে মামলার বাদী ও সাক্ষীরা পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ১ টার দিকে উপজেলার লেমশীখালী ইউনিয়নের ছিদ্দিক হাজীর পাড়ায় এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আহতদের বসতভিটা জোরপূর্বক দখলে নিতে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতিসহ হুমকি দিয়ে আসছে প্রতিপক্ষের লোকজন। তারই ধারাবাহিকতায় গত ২৭ নভেম্বর বিকাল পাঁচ টার দিকে প্রতিপক্ষ মৃত আব্দু সালামের ছেলে নুরুল আবছার (৫৫) ও তার স্ত্রী ছেলে মেয়েসহ আরো ২/৩ জন স্বজনরা মেহের উদ্দিন ও তাঁর স্ত্রীকে কুপিয়ে পালিয়ে যান ।

এ ঘটনায় আহতদের ছেলে মুবিনুল ইসলাম ফয়সাল (২৭) বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে এ মামলাকে চাপা দিতে নিজ বসতঘরে আগুন দিয়েছে বলে জানান স্থানীয় লোকজন।

লেমশীখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আকতার হোসেন ও স্থানীয় ইউপি সদস্য শহিদুল্লাহ জানান, আগুন লেগেছে এটা শুনেছি। তবে,কে বা কারা দিয়েছে এটা জানান না।

মামলার বাদী মুবিনুল ইসলাম ফয়সাল (২৭) জানান, আসামীরা আমার পিতা-মাতাকে কুপিয়ে জখম করে এবং নিজ বসতঘরে আগুন লাগিয়ে মিথ্যা মামলা পায়তারা চালিয়ে যাচ্ছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাত আনুমানিক ১টার দিকে ঘুমনো অবস্থায় আগুন লেগেছে আগুন লেগেছে চিৎকারের শব্দ শুনে নিজেও আগুন নিভানোর জন্য ছুটে আসি। পরে আসামিদের পরিবারের লোকজন বলাবলি করতেছে আমরা আগুন লাগিয়ে দিয়েছি। তিনি পুলিশ প্রশাসনের কাছে হস্তক্ষেপ কামনা করেন এবং সঠিক তদন্তের মাধ্যমে অভিযুক্তদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান তিনি।

অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থনে পাঠানো হয়েছিল। তদন্তের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান, কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শুভ রঞ্জন চাকমা।

যাযাদি/ এম

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে