বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

নড়াইলে পুনরায় ভোট চান তুফান

নড়াইল প্রতিনিধি
  ২৫ মে ২০২৪, ২১:২৮
ছবি-যায়যায়দিন

নড়াইল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন- ২০২৪ সুষ্ঠু না হওয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠান হয়েছে। বুধবার (২২ মে) বি সন্ধ্যায় সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, নড়াইল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চেয়ারম্যান প্রার্থী (ঘোড়া প্রতিক) তোফায়েল মাহামুদ তুফান।

এসময় তিনি অভিযোগ করে বলেন, গত ( ২১ মে) নির্বাচনের দিন বিভিন্ন এলাকায় আমার নির্বাচনী এজেন্টদের কেন্দ্র হতে বের করে দেওয়া ভোটারদের ভোট প্রদানে বাধা দেওয়া হয়েছে।

কয়েকটি কেন্দ্রে প্রচুর পরিমাণে জাল ভোট প্রদান যার ভিডিও ফেসবুক সহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। বক্তব্যে চন্ডিবরপুর ইউনিয়নের সকল কেন্দ্র, আউড়িয়া ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর, দত্তপাড়া স্কুল, চারিখাদা স্কুল, মাইজপাড়া ইউনিয়নের চারিখাদা স্কুল কেন্দ্রীর ভোট যাচাই- বাচাই সহ পুনরায় গননা করার আহ্বান জানান তিনি।

তোফায়েল মাহমুদ তুফান আরো জানান, নড়াইল সদর উপজেলায় ১০০ কেন্দ্রের মধ্যে ৯৫ কেন্দ্রের ফলাফলে আমি এগিয়ে থাকা সত্ত্বেও বাকি ৫ কেন্দ্রের ফলাফল বিলম্বে প্রকাশ করে কারসাজি করে আমাকে হারিয়ে দেয়া হয়েছে। নির্বাচনে আচরণবিধি ভঙ্গ করে নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ও মহান জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ মাশরাফি বিন মুর্তজা আমার বিরুদ্ধে প্রচারণা করলে লিখিত অভিযোগ দেয়ার পরও জেলা রিটার্নিং অফিসার আমাকে নোটিশ না করে প্রমাণ দেখতে না চেয়ে আমার অভিযোগটা ভিত্তিহীন বলেছেন।এটাও নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করেছে।

তোফায়েল মাহমুদ তুফান সংবাদ সম্মেলনের আগে জেলা রিটার্নিং অফিসারের কাছে আবারো লিপিত অভিযোগ দিয়ে লিখেছেন।

২১/০৫/২০২৪ ইং তারিখের নড়াইল সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনের দিনে বিভিন্ন এলাকায় আমার নির্বাচনী এজেন্টদের কেন্দ্র হতে বের করে দেওয়া, ভোটারদের ভোট প্রদানে বাধা প্রদান করেছে এবং কয়েকটি কেন্দ্রে প্রচুর পরিমানে জাল-ভোট প্রদান করেছে যাহা ইতিমধ্যে সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

সেকারণে চন্ডিবরপুর ইউনিয়নের সকল কেন্দ্র, আউড়িয়া ইউনিয়নে রামচন্দ্রপুর স্কুল কেন্দ্র, দত্তপাড়া, স্কুল কেন্দ্র এবং মাইজপাড়া ইউনিয়নে চারিখাদা স্কুল কেন্দ্রের ভোট যাচাই-বাছাই সহ পুনরায় গণনা করা আবশ্যক।

উল্লেখ্য বিষয় যে, চন্ডিবরপুর ইউনিয়নের সীবানন্দপুর কেন্দ্রের ৮১% (প্রায়) ভোট কাস্ট করানো হয়েছে, যেখানে সমগ্র নড়াইল সদর উপজেলায় মোট কাস্টিং ৩৭.৪৯% যাহা সদর উপজেলার অন্যান্য কেন্দ্রের সাথে অসামঞ্জস্যপূর্ণ রয়েছে। বিভিন্ন কেন্দ্রে প্রার্থীকে শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করা হয়েছে। যার প্রেক্ষিতে রেজাল্ট শীটে প্রার্থীর এজেন্টরা কোন স্বাক্ষর করতে অপরাগতা প্রকাশ করে।

অতএব, ভোটকেন্দ্র সমূহে পুনরায় ভোট গ্রহন, পুনঃগননা, ব্যালটের মুড়ি অংশ এবং ব্যালটের যাচাই-বাছাই সহ সামগ্রিক নির্বাচন পুনরায় অনুষ্ঠানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করতে অনুরোধ জানান।

যাযাদি/ এম

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে