শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১

ঈদ করতে চাঁদপুর লঞ্চঘাটে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়

চাঁদপুর প্রতিনিধি
  ১৫ জুন ২০২৪, ১৯:৫৯
ছবি যাযাদি

দরজায় কড়া নাড়ছে পবিত্র ঈদুল আযহা। আগামী ১৭ জুন সোমবার সারাদেশে উদযাপিত হবে ঈদুল আজহা। প্রিয়জনদের সঙ্গে কোরবানির ঈদ উদযাপনে রাজধানী ছেড়ে লঞ্চযোগে বাড়ি ফিরছেন। ঈদের আগমুহূর্তে চাঁদপুর লঞ্চঘাটে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড় শুরু হয়েছে।

শনিবার সকাল থেকে চাঁদপুর লঞ্চ টার্মিনাল এলাকা ঘুরে দেখা যায়, প্রায় প্রতিটি লঞ্চই যাত্রী বোঝাই। কোনও লঞ্চেই কেবিন খালি নেই। ডেকেও দেখা গেছে যাত্রীদের ভিড়। অল্প খরচে যাতায়াতের জন্য ডেকে জায়গা নিয়ে বাড়ি ফিরছেন যাত্রীরা। প্রায় প্রতিটি লঞ্চকেই অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে ঘাটে ভিড়তে দেখা গেছে।

পরিবারের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে এদিন নদীপথে ঢাকা থেকে চাঁদপুর আসছেন হাজার হাজার মানুষ। বিশেষ করে বরিশাল ও ভোলা রুটে যাত্রীদের লঞ্চের জন্য যাত্রীদের অপেক্ষা করতে দেখা যায়।

ঢাকা থেকে ঈদ করতে আসা সোহাগ হোসেন বলেন, ঈদের দিনটি অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ। পরিবারের সবার সাথে ঈদ করতে লঞ্চে করে আসলাম। লঞ্চ জার্নি আরামদায়ক, তাই লঞ্চে সব সময় যাতায়াত করি। ঈদের সময় বলে এখন একটু ভিড় বেশি।

চাঁদপুর থেকে বরিশালগামী যাত্রী ফারজানা বলেন, চাঁদপুর লঞ্চঘাটে লঞ্চের জন্য অপেক্ষা করছি। দেরি হলে শরিয়তপুর হয়ে যেতে হবে। বাসের থেকে লঞ্চে যাতায়াত সুবিধা। পরিবারের সাথে ঈদের আনন্দটুকু ভাগাভাগি করতে বাড়ি যাচ্ছি।

চাঁদপুর বিআইডব্লিউটিএর টিআই শাহ আলম জানান, লঞ্চে যাতে যাত্রীদের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়, সেই বিষয়ে লঞ্চ কর্তৃৃপক্ষে অবগত করা হয়েছে। এছাড়া লঞ্চ যাতে ঝুঁকি নিয়ে অতিরিক্ত যাত্রী বহন না করে, তার জন্য আমাদের টিম নজরদারি করছে।

চাঁদপুর নৌ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, যাত্রীদের সকল সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে নৌ পুলিশ সার্বক্ষণিক লঞ্চঘাটে অবস্থান করছে। বিশেষ করে আমাদের একটু কন্ট্রোলরুম খোলা হয়েছে। এখানে যাত্রীরা যে কোন অভিযোগ করতে সাথে সাথে ব্যবস্থা করা হবে। নৌ পুলিশের পাশাপাশি কোস্টগার্ড ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা নদীতে টহল দিচ্ছে।

যাযাদি/এসএস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে