logo
বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  যাযাদি রিপোর্ট   ১৪ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

ঢাকার উন্নয়নে ৩০ বছরের মহাপরিকল্পনা নেব: তাপস

ঢাকার উন্নয়নে ৩০ বছরের মহাপরিকল্পনা নেব: তাপস
সোমবার রাজধানীর মুগদা থানার মানিকনগর বাসস্ট্যান্ডে নির্বাচনী প্রচারণা করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নৌকার মেয়রপ্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস -যাযাদি
ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) নৌকার মেয়র প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেছেন, নির্বাচনী প্রচারণায় জনগণের যে সাড়া পাচ্ছি, তাতে আশা করছি, আগামী ৩০ জানুয়ারি আমাকে মেয়র পদে নির্বাচিত করবে জনগণ।

সোমবার দুপুর ১টার দিকে রাজধানীর মুগদা থানার মানিকনগর বাসস্ট্যান্ডে নির্বাচনী প্রচারণা শুরুর আগে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, নির্বাচিত হলে দায়িত্ব গ্রহণের ৯০ দিনের মধ্যে আমরা ঢাকাবাসীর সব নাগরিক মৌলিক সুবিধা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেব।

তিনি বলেন, দক্ষিণ সিটি করপোরেশন হবে দুর্নীতিমুক্ত। জনগণের আকাঙ্ক্ষিত উন্নত ঢাকা গড়ার পথে নবসূচনা হবে। সুন্দর ও ঐতিহ্যবাহী ঢাকা গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করছি। ঢাকাবাসীর সেবক হিসেবে কাজ করব।

তাপস বলেন, ঢাকার উন্নয়নের জন্য ৩০ বছর মেয়াদি দীর্ঘ মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে। সেই পরিকল্পনায় আমরা আমাদের জলাবদ্ধতা দূর, রাস্তাঘাট এবং ড্রেনেজ ব্যবস্থাসহ বিভিন্ন অবকাঠামোগত উন্নয়ন কাজ করব। সিটি করপোরেশনের অবকাঠামো উন্নয়নের পর অন্তত তিন বছর অন্য কোনো সংস্থাকে রাস্তা খোঁড়াখুঁড়ি এবং ভাঙাভাঙির কাজ করতে দেওয়া হবে না।

এ সময় শেখ ফজলে নূর তাপস আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের নৌকার উন্নয়নের বার্তা প্রতিটি মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার আহ্বান জানান।

তাপস আরও বলেন, 'ঐতিহ্যের ঢাকা, সুন্দর ঢাকা, সচল ঢাকা, সুশাসিত ঢাকা এবং উন্নত ঢাকা গড়তে যে স্বতঃস্ফূর্ত সাড়া পাচ্ছি, আমরা আশা করি ৩০ জানুয়ারি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আমাকের নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে ঢাকাবাসী সেই ঢাকা গড়ার পক্ষে তাদের রায় দেবে এবং আমাকে তাদের সেবক হিসেবে নির্বাচিত করবে।'

বর্ষা মৌসুমে ঢাকার জলাবদ্ধতা নিরসনে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনায় অবকাঠামো উন্নয়নের কাজে হাত দিতে চান বলে জানান তিনি।

'নির্বাচিত হতে পারলে ৯০ দিনের মধ্যে ঢাকাবাসীর সকল মৌলিক সুবিধা তাদের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়া এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনকে একটি দুর্নীতিমুক্ত সংস্থা হিসেবে প্রতিষ্ঠা করাই লক্ষ্য। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আওতায় কাজ করার পর অন্তত তিন বছর অন্য কোনো সংস্থাকে সেই এলাকায় কাজ করতে দেয়া হবে না। এটা হলে যে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হয়, সেই দুর্ভোগ থেকে ঢাকাবাসী পরিত্রাণ পাবে।'

মানিকনগর বাসস্ট্যান্ডে থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করে তাপস বালুরমাঠ, মান্ডা পর্যন্ত গণসংযোগ করেন। এরপর তিনি দিনব্যাপী বাসাবো ও খিলগাঁওয়ে নির্বাচনী প্রচারণা বলে জানা যায়।

আওয়ামী লীগ প্রার্থী ব্যারিস্টার তাপস গণসংযোগকালে নৌকা মার্কার লিফলেট ভোটারদের হাতে তুলে দিয়ে ভোট প্রার্থনা করেন। সেইসঙ্গে তিনি ভোটারদের সঙ্গে স্থানীয় নানা বিষয়ে কথা বলেন, খোঁজখবর ও কুশল বিনিময় করেন।

নির্বাচনী প্রচারণাকালে তার সঙ্গে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সহযোগী অঙ্গ সংগঠনসমূহের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ব্যারিস্টার তাপসের নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার জন্য ভোটারদের আকৃষ্ট করতে বিভিন্ন ধরনের স্স্নোগান দিতে দেখা যায়।

প্রচারণা শুরুর আগে শেখ ফজলে নূর তাপস মানিকনগর বাসস্ট্যান্ডে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত নির্বাচনী পথসভায় বক্তব্য দেন।

এ সময় তাপস সাত নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আবদুল বাতেন বাচ্চু (রেডিও প্রতীক) এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থী মাকসুদাকে (আনারস) পরিচয় করিয়ে দেন তিনি।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে