রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
walton

কিছু একটা হচ্ছে গোপনে : মাহি-রকিবের রহস্যময় পোস্ট

যাযাদি ডেস্ক
  ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৪৬
একান্তে মাহিয়া মাহি ও রকিব সরকার

রকিব নিরব ছিলেন এই কয়দিন। কিন্তু তিনি কথা বলবেন বলেও বলেননি। তবে মাহির এক পোস্টে সব ঘোলাটে হয়ে গেল। চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি বলছেন একা একা লাগে। অন্যদিকে রাকিবের উচ্চারণ ‘তোমাতেই ডুবে থাকি’। মানে কিছু একটা হচ্ছে গোপনে।

গত সপ্তাহে স্বামী রকিব সরকারের সঙ্গে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। বর্তমানে এক ছাদের নিচে থাকছেন না এই দম্পতি। সন্তানকে নিয়ে মাহি থাকছেন আলাদা।

বৃহস্পতিবার রাতে ফেসবুকে তিন শব্দে একটি পেস্ট করেছেন মাহি। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘একা একা লাগে’। এর মধ্যেই ভক্তদের জানালেন নিজের একাকিত্বে ভোগার কথা। মাহির স্ট্যাটাসে শুভাকাঙ্ক্ষী বিভিন্ন মন্তব্য করেছেন। কেউ পরামর্শ দিয়েছেন, ধৈর্য্য ধরতে। আল্লাহকে ডাকতে, নামাজ পড়তে।

এদিকে বিচ্ছেদের ঘোষণার এক সপ্তাহের মাথায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস লিখে স্ত্রী, সন্তানসহ রকিব একটি ছবি প্রকাশ করেন। ওই দিন রাতেই মাহিও তাঁর ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস লেখেন। বুধবার পাশে মাহি ও সন্তান ফারিশকে কাঁধে নিয়ে দাঁড়ানো একটি ছবি রকিব তাঁর ফেসবুকে পেজে প্রকাশ করেন। সঙ্গে ভালোবাসার ইমোজি দিয়ে লিখেছেন, ‘তোমাতেই ডুবে থাকি।’

এর আগে ভিডিও বার্তায় নিজের বিচ্ছেদের ঘোষণা দিলেও কারণ স্পষ্ট করেননি এই নায়িকা। মাহি বলেছিলেন, ‘আমি আর রাকিব খুব ভালো বোঝাপড়া থেকে বিয়ের সিদ্ধান্তে নিয়েছিলাম। কিন্তু জীবনের একটা পর্যায়ে এসে মনে হয়েছে আমাদের একসঙ্গে থাকা সম্ভব নয়। তাই আমরা আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ইতোমধ্যে আমরা আলাদা থাকছি।’

অভিনেত্রী জানান, রাকিব খুব ভালো একজন মানুষ। তাকে আমি সম্মান করি। সে অনেক কেয়ারিং। সবসময় আমাকে একটা ছাতার মতো আগলে রেখেছে। তবুও একটা ছাদের নিচে দু’জন মানুষ কেন ভালো নেই, সেটা কেবল ওই দুইজন মানুষই জানে। তৃতীয় কোনো ব্যক্তিও সেই সমস্যার কারণ বুঝতে পারবে না। খুব দ্রুতই আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে বিচ্ছেদে যাচ্ছি। কবে আর কীভাবে হবে সেটাও দুজন মিলেই ঠিক করব।

২০২১ সালে রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়ী কামরুজ্জামান সরকার রাকিবকে বিয়ে করেন মাহিয়া মাহি। এটি মাহি ও রকিবের দ্বিতীয় বিয়ে ছিল। এর আগেও ২০১৬ সালের ২৪ মে সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুকে বিয়ে করেছিলেন তিনি। কয়েক বছরের মাথায় ভেঙে যায় সেই সংসার। এরপরই রাকিব সরকারের গলায় মালা দেন অভিনেত্রী। তাদের বিয়ের এক বছরের মাথায় জন্ম নেয় এক পুত্র সন্তানের। যার নাম ফারিশ।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে