মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১

ঈশ্বরদীতে রক্ত শূন্যতায় প্রসূতির মৃত্যু

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি
  ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১২:২২
ঈশ্বরদীতে রক্ত শূন্যতায় প্রসূতির মৃত্যু

ঈশ্বরদীতে সন্তান প্রসবের সময় এ প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (৫ই সেপ্টেম্বর) সকালে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মোছা. দিপা খাতুন (২০) ঈশ্বরদী উপজেলার সাহাপুরইউনিয়নের চর-সাহাপুর এলাকার মো. সজীবের স্ত্রী এবং চরমিরকামারী মাথালপাড়া গ্রামের মো. শাহাদাৎ আলীর মেয়ে ।

হাসপাতাল ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, রাতে দিপার প্রসব বেদনা উঠলে ভোর সারে ৩ টার দিকে তাকে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন পরিবারের সদস্যরা। এরপর সকাল ৭ টা ৫ মিনিটে দিপার স্বাভাবিক ডেলিভারির মাধ্যমে একটি ছেলে বাচ্চা হয়। তবে বাচ্চা প্রসবের সময় বাচ্চা এবং মা উভয়েই সুস্থ থাকলেও সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে দিপার মৃত্যু হয়।

ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মিডওয়াইফ দিব্বা ভারতী মন্ডল যায়যায়দিনকে জানান, দিপার প্রসবের সময় আমার ডিউটি ছিলো। তার পূর্বের করা সকল মেডিকেল রিপোর্ট গুলোতে তার রক্তের পরিমান অনেক কম ছিলো। আমাদের কারনে দিপার মৃত্যু ঘটেনি। দিপার মৃত্যু হয়েছে শরীরে রক্তের তীব্র ঘাটতির কারনে।

দিপার স্বামী মো. সজীব হোসেন বলেন, বাচ্চা পেটে থাকা অবস্থায় ডাক্তার দিপার রক্ত শূন্যতার কথা বলেছিলেন। আমরা সেটার জন্য স্যালাইন দিয়েছিলাম। কিন্তু আজকে জানতে পারলাম দিপার নাকি রক্ত শূন্যতার কারনেই মৃত্যু হয়েছে।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অরবিন্দ সরকার বলেন, দিপা মৃত্যুর ঘটনায় এখনো পর্যন্ত আমরা কোন অভিযোগ হয়নি। তবে অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে