​কাবুলে ‘সস্তায়’ বিক্রি হচ্ছে বাড়ি

​কাবুলে ‘সস্তায়’ বিক্রি হচ্ছে বাড়ি

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল দখলের পর তালেবানের ভয়ে সেখানকার অনেক অধিবাসী ভিটেবাড়ি ও সম্পত্তি ছেড়ে পালিয়েছেন। অনেক বাড়িই এখন খালি পড়ে আছে। নিরাপত্তার প্রশ্নে সেখানে নতুন করে বাড়ি ভাড়া ও জমি কিনতে চাইছে না মানুষ। ফলে কাবুলে জমি ও বাড়ির দাম একেবারে কমে গেছে।

দেশটির আবাসান ব্যবসায়ীরা আফগানিস্তানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম টোলো নিউজকে এই তথ্য জানিয়েছেন। স্থানীয় ডিলার ও বিক্রেতাদের বরাতে সংবাদমাধ্যমটি আজ বুধবার জানিয়েছে, কাবুলে জমির বেচাকেনা একদম কমে গেছে। পাশাপাশি জমির দাম অন্তত ৫০ শতাংশ কমে গেছে।

ডিলাররা জানান, মানুষ আর বাড়ি না কেনায় তাদের বিক্রি একেবারেই নেই। হয়তো বাড়ি কেনার মতো পর্যাপ্ত অর্থও নেই। কিংবা তারা দেশ ছেড়ে পালানোর চেষ্টা করছেন।

তালেবানের ভয়ে ভাড়াটিয়ারা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ায় কোনো কোনো বাড়ি খালিই পড়ে রয়েছে বলে ডিলাররা জানিয়েছেন। জমির দালালী পেশায় নিযুক্ত মোহাম্মদ ইউসুফ নামের এক ব্যক্তি জানান, কাবুলে তালেবান আসার পর বাড়ির ভাড়াও কমে গেছে। আগে যে বাড়ি ২০ হাজার আফগান মুদ্রায় ভাড়া দেওয়া হতো, এখন তা ১০ হাজারে দেওয়া হচ্ছে।

কাবুলের অভিজাত এলাকা শাহরাক-ই-আরিয়ার প্রায় অর্ধেকের মতো বাসিন্দা আফগানিস্তান ছেড়ে চলে গেছেন। কিংবা অর্থনৈতিক দুরাবস্থার কারণে এলাকা ছেড়ে দিয়েছেন বলে জানিয়েছে টোলো নিউজ।

ওই এলাকার মোহাম্মদ মানসুরি নামের এক কর্মকর্তা জানান, সেখানকার প্রায় ৫০ শতাংশ মানুষ এলাকা ছেড়েছেন। অর্ধেকের বেশি অ্যাপার্টমেন্ট খালি পড়ে আছে অভিজাত এলাকাটিতে। দেশের অর্থনৈতিক দুরাবস্থা নিয়ে বর্তমানে বসবাসরত বাসিন্দারা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে