মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ইসরায়েল বুঝতে পারেনি ইরানের শক্তি কেমন

যাযাদি ডেস্ক
  ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৩৭
ছবি সংগৃহিত

দীর্ঘদিন ধরে দখলদার ইসরায়েল অবরুদ্ধ গাজা, ফিলিস্তিন, লেবানন, সিরিয়া ও ইয়েমেনে হামলা করে আসছে। এতে বহু মানুষ হতাহতের ঘটনা ঘটেছে, এখনো ঘটছে। কিন্তু সেই অর্থে ইসরাইয়ের মুখোমুখি হবার সাহস পায়নি কেউ। হামাস মাঝে মধ্যে পাল্টাা আক্রমণ করলেও টিকতে পারেনি। কিন্তু এবার ইরান যেভাবে রাষ্ট্রীয় শক্তি ব্যবহার করলো তাতে বিস্মিত ইসরায়েল। তারা ধারণা করতে পারেনি ইরান এমন একটি কাণ্ড করবে।

জানা যায়, কনস্যুলেটে হামলার প্রতিশোধ নিতে ইরান যে এত শক্তি প্রয়োগ করবে, সেটি বুঝতে পারেনি ইসরায়েল। নিউইয়র্ক টাইমসকে এ তথ্য জানিয়েছেন কয়েক মার্কিন কর্মকর্তা। এক ইসরায়েলি কর্মকর্তার বক্তব্য উদ্ধৃত করে মার্কিনিরা বলেছেন, ইসরায়েলিরা বিষয়টি নিয়ে খুবই বাজে হিসাব করেছিল। মনে করেছিল, ইরান শক্তিশালী প্রতিক্রিয়া দেখাবে না। কনস্যুলেটে হামলা চালানোর মাত্র কয়েক মিনিট আগে যুক্তরাষ্ট্রকে এ ব্যাপারে ইসরায়েল অবহিত করে। এতে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা ক্ষিপ্ত হন বলে জানায় নিউইয়র্ক টাইমস।

আরও জানা যায়, সংবাদমাধ্যমটিকে দুই ইসরায়েলি কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কনস্যুলেটে হামলা চালানোর পরিকল্পনা আরও দুই মাস আগে করা হয় এবং গত ২২ মার্চ ইসরায়েলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভা এটির অনুমোদন দেয়। যদিও হামলার পরপর ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু জানিয়েছিলেন, তিনি এ ব্যাপারে কিছু জানেন না। তবে নেতানিয়াহুর নেতৃত্বাধীন মন্ত্রিসভাই এটির অনুমোদন দেয়। কিন্তু কনস্যুলেটে হামলার পর ইরান পাল্টা হামলা চালাতে এত শক্তি প্রয়োগ করবে, এটি ইসরায়েল একদমই বুঝতে পারেনি।

তারা তাদের প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে বলেছিল, ইরান ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে খুব বেশি হলে ১০টি সারফেস টু সারফেস ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়তে পারে। এর পর গত সপ্তাহে তারা নতুন পর্যবেক্ষণে জানায়, ইরান থেকে সর্বোচ্চ ৬০ থেকে ৭০টি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়তে পারে। কিন্তু ইরান কয়েকশ ড্রোন এবং একশরও বেশি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়বে, এটি তারা কল্পনাও করেনি। এদিকে চলতি মাসে ইরানের হামলার জবাব দেবে না ইসরায়েল।

পাসওভার উৎসব শেষ হওয়ার আগে ইরানে হামলা চালাবে না ইসরায়েল। আর এটি শেষ হবে ৩০ এপ্রিল। এক মার্কিন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে মূলত এ কথা জানিয়েছে এবিসি নিউজ। তবে তিনি এটাও জানিয়েছেন, এ সিদ্ধান্ত যে কোনো সময় বদলে যেতে পারে। অন্যদিকে, ইরানের সেনাপ্রধান কমান্ডার মেজর জেনারেল আব্দোলরহিম মৌসাভি বলেছেন, ইরানের স্বার্থের বিরুদ্ধে কোনো আগ্রাসন চালানো হলে কঠোরভাবে তার জবাব দেওয়া হবে।

এই জবাব এমন হবে, তাদের অনুতাপ করতে হবে। ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলার বদলা নিতে পাল্টা হামলা চালানোর ঘোষণা দিয়েছে ইসরায়েল। এই প্রেক্ষাপটে বুধবার তেহরানে ইরানের জাতীয় সেনা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানের ফাঁকে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন দেশটির সেনাপ্রধান।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে