মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০
walton

আ.লীগ নির্বাচন ও গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না : রিজভী

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি
  ২৬ মে ২০২৩, ১৪:৩৭

আওয়ামী লীগ নির্বাচন ও গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাড. রুহুল কবির রিজভী।

শুক্রবার (২৬ মে) ঢাকা কেরানীগঞ্জ উপজেলার বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে সামনে এক জনসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ তো নির্বাচনেই বিশ্বাস করে না। আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না। আওয়ামী লীগ; বিশেষ করে এই সরকার, তারা অত্যন্ত সচেতনভাবে গণতন্ত্রকে ধবংস করে তাদের যে পুরনো লক্ষ্য—সেই একদলীয় শাসন ব্যবস্থা বাকশালের ন্যায় একটি শাসন ব্যবস্থা এখানে প্রতিষ্ঠা করতে চায়।

অ্যাড. রুহুল কবির রিজভী বলেন, সেই লক্ষ্যে তারা ২০১৪ সালেও নির্বাচনকে সম্পূর্ণভাবে একটা প্রহসনে পরিণত করেছে, নির্বাচনে জনগণ ভোট দিতে যায়নি। একইভাবে ২০১৮ সালে নির্বাচনের আগের রাতে ভোট করে নিয়ে জোর করে ক্ষমতায় বসে আছে। জনগণ সেখানেও অংশগ্রহণ করেনি।

বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, আপনারা নিশ্চয়ই লক্ষ্য করেছেন, স্থানীয় সরকারের নির্বাচনগুলোতে জনগণ অংশ করছে না, ভোটররা কেন্দ্রে যাচ্ছে না। জনগণ বোঝে, মানুষ বোঝে, গোটা বিশ্ব বোঝে এই সরকার ক্ষমতায় থাকলে কোনো দিনই কোনো সুষ্ঠু-অবাধ নির্বাচন হবে না। জনগণ সেই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না। সেই কারণেই আজকে আওয়ামী লীগ এসব (বিএনপিকে নির্বাচন ভীতি পেয়ে বসেছে) কথা বলে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে চায়।

সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব আরও বলেন, বিশেষ করে, বিদেশে তাদের ভাবমূর্তি ইতোমধ্যেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তারা সেই ভাবমূর্তি তৈরি করতে চায় কিন্তু এবার জনগণ জেগে উঠেছে। আমরা বিশ্বাস করি, জনগণ দুর্বার আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এদেরকে পরাজিত করবে এবং সত্যিকার অর্থে একটি গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করবে।

ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি খন্দকার আবু আশফাকের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরী সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাধারণ সম্পাদক মোজাদ্দেদ আলী বাবু, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিমুদ্দিন মাস্টার, জিনজিরা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ওমর শাহ নেওয়াজ, থানা যুবদলের সাবেক সভাপতি মোকাররম হোসেন সাজ্জাদ, জয়নাল আবেদিন, সোহেল রানাসহ বিএনপি বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এরআগে কেরানীগঞ্জের বিএনপির জনসমাবেশকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ঘটনা ঘটে। এতে ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নিপুণ রায়সহ উভয়পক্ষের অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। নিপুণ রায়কে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।

বিএনপির কিছু উত্তেজিত নেতাকর্মী দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আমিনুল ইসলাম। তবে পরিকল্পিতভাবে হামলার অভিযোগ আওয়ামী লীগের। আর দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোজাদ্দেদ আলী বাবু বলেন, বিএনপির সমাবেশ চলাকালে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ইটপাটকেল ছুড়তে শুরু করে। এ সময় ইটের আঘাতে নিপুণ রায় চৌধুরীসহ বিএনপির বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হন।

তবে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, বিএনপির সমাবেশে কোনো বাধা দেয়া হয়নি। তাদের কিছু কর্মী বিশৃঙ্খলা করেছে।

এ ঘটনার পর ওই এলাকায় অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে