বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০
walton

বিবিএস কেবলসের ক্যাটাগরি পরিবর্তন

যাযাদি ডেস্ক
  ২৭ নভেম্বর ২০২৩, ১৩:৩৭

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিবিএস কেবলস লিমিটেড বিদ্যমান ‘এ’ থেকে ‘বি’ ক্যাটাগরিতে পরিবর্তন হয়েছে। সর্বশেষ ৩০ জুন সমাপ্ত ২০২৩ হিসাব বছরে বিনিয়োগকারীদের ২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করায় ক্যাটাগরি পরিবর্তন হয়। গতকাল থেকে এটি কার্যকর হয়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তথ্য অনুসারে, চলতি ২০২৩-২৪ হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) নিট লোকসান হয়েছে ৬ কোটি ৬৭ লাখ টাকা। আগের হিসাব বছরের একই প্রান্তিকে নিট মুনাফা ছিল ২ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৩২ পয়সা। আগের হিসাব বছরের একই প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) ছিল ১৫ পয়সা। গত ৩০ সেপ্টেম্বর শেষে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৩২ টাকা ৬৮ পয়সায়।

সর্বশেষ সমাপ্ত ২০২৩ হিসাব বছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য ২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে কোম্পানিটি। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৪৬ পয়সা। গত ৩০ জুন শেষে কোম্পানিটির এনএভিপিএস ছিল ৩২ টাকা ৯৯ পয়সা।

সমাপ্ত ২০২১-২২ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের মোট ১৩ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছে বিবিএস কেবলস। এর মধ্যে ৮ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৪ টাকা ১ পয়সা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল ৪ টাকা ৬১ পয়সা। গত বছরের ৩০ জুন শেষে কোম্পানিটির এনএভিপিএস দাঁড়ায় ৩৪ টাকা ৯৬ পয়সায়, আগের হিসাব বছর শেষে যা ছিল ৩১ টাকা ৯০ পয়সা।

সর্বশেষ ঋণমান অনুসারে, কোম্পানিটির সার্ভিলেন্স এনটিটি রেটিং দীর্ঘমেয়াদে ‘এ প্লাস’ ও স্বল্পমেয়াদে ‘এসটি-টু’। সমাপ্ত ২০২১-২২ হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে এ প্রত্যয়ন করেছে ন্যাশনাল ক্রেডিট রেটিংস লিমিটেড।

৩০ জুন সমাপ্ত ২০২০-২০২১ হিসাব বছরের জন্য ১৫ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছে বিবিএস কেবলস। এর মধ্যে ১০ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ। ২০১৯-২০ হিসাব বছরের শেয়ারহোল্ডারদের মোট ২০ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছিল বিবিএস কেবলস। এর মধ্যে ১০ শতাংশ নগদ ও বাকি ১০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ।

যাযাদি/ এসএম

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে