বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

লিটনের বাদ পড়া নিয়ে রহস্যময় তথ্য দিলেন হাথুরু

যাযাদি ডেস্ক
  ১৯ মার্চ ২০২৪, ১১:১৭
-ফাইল ছবি

দেশের ক্রিকেটে এখন আলোচিত নাম লিটন দাস। শ্রীলংকা সিরিজের প্রথম দুই ওয়ানডে ম্যাচে রানের খাতা খুলতে না পারা লিটনকে তৃতীয় ওয়ানডের আগে স্কোয়াড থেকে ছাঁটাই করা হয়েছে। লিটনের বাদ পড়া নিয়ে চারদিকে চলছে নানা আলোচনা। এরই মধ্যে নিজেকে ফিরে পেতে লিটন অংশ নিয়েছেন ডিপিএলে। সেখানেও ব্যর্থ তার ব্যাট।

সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচের জন্য ঘোষিত স্কোয়াডে জায়গা হয়নি ক্ল্যাসিক এই ওপেনারের। তার বদলে জাকের আলী অনিককে স্কোয়াডে ভেড়ানো হয়। লিটনের বাদ পড়া নিয়ে মুখ খুলেছেন টাইগারদের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। ওয়ানডে দল থেকে জায়গা হারানো লিটন দাসের অভিজ্ঞতার মূল্য দেখছেন প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। তবে আপাতত ছন্দহীনতায় তার থেকে দলকে সরতে হয়েছে বলে মনে করেন তিনি।

সোমবার সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচ শুরুর আগে হাথুরুসিংহে জানান, সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন না থাকলেও বর্তমানে ফর্মে না থাকায় বাদ পড়েছেন লিটন। লঙ্কান এই মাইন্ডমাস্টারের ভাষ্যমতে, ‘লিটনের অভিজ্ঞতা সবসময়ই মূল্যবান। সে এমন একজন খেলোয়াড় যেকোনো সময় নেমে ম্যাচ জেতানোর মতো ইনিংস খেলতে পারে। তবে সেটা বললেও, কিছু সময় সে ফর্মে নেই। ফলে দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমাদের সামনে তাকাতে হচ্ছে।’

এর আগে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু জানান, নতুন বলে খুবই অধারাবাহিক হওয়ার কারণে লিটনকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

লিপুর ভাষ্যমতে, ‘সিরিজ চলমান থাকায় পরিবর্তনের খুব বেশি সুযোগ ছিল না। নতুন বলে খুবই অধারাবাহিক হওয়ার কারণে আমরা লিটন দাসকে এই স্কোয়াডের সঙ্গে আর রাখছি না। দলে আগে থেকে এনামুল হক বিজয় ও তানজিদ হাসান তামিম রয়েছে, যারা ওপেন করতে পারে। আরেকজন ওপেনার আছে সৌম্য সরকার। লিটনকে যখন স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত করলাম না, তাই এই জায়গায় আবারও কোনো ওপেনারের প্রয়োজন দেখিনি।’

তিনি যোগ করেন, ‘এই সিলেকশন প্রক্রিয়ায় আমরা কোচ-অধিনায়কের মতামত নিয়েছি। আমরা দেখেছি লিটনের পরিবর্তে দলে যদি মিডল-অর্ডারে কাউকে সংযোজন করা যায়। সেখানে অনিককে মনে করেছি যথার্থ হবে। সাদা বলে সে টি২০ খেলেছে, রান করেছে, ডিপিএলেও রান পেয়েছে সে। মিডল-অর্ডারে ওপরের দিকে খেলতে পারে আবার ফিনিশারের ভূমিকাও পালন করতে পারে।’

দল থেকে বাদ পড়ার পর লিটন অংশ নিয়েছেন ডিপিএলে। ঢাকা আবাহনীর হয়ে ফিরে আসার সংগ্রামের শুরুটা অবশ্য হতাশাজনক হয়েছে লিটনের। গত রোববার ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৫ রান করেই আউট হয়ে গেছেন লিটন। ব্যাট হাতে একের পর এক হতাশাজনক পারফরম্যান্স উপহার দেওয়া লিটনকে ক্লান্ত মনে হয়েছে আবাহনীর প্রধান কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনের।

গণমাধ্যমকে সুজন বলেন, ‘আসলে (লিটন) একটু বেশিই ক্লান্ত মনে হচ্ছে আমার কাছে। হঠাৎ করে রোববার এসেছে, তখনই জানতে পেরেছে ওর খেলতে হবে। মানসিকভাবেও অতটা প্রস্তুত ছিল না। আমিও তাকে তিনে ব্যাটিং করিয়েছি।’

সুজন মনে করেন, ‘মানসিকভাবেও কিছুটা অস্বস্তিতে আছেন লিটন। তিনি বলেন, ‘মানসিকভাবে হয়তোবা একটু অস্বস্তিতে আছে। যেহেতু সে (লিটন) রান করতে পারেনি, এটা নিয়ে হয়তোবা.... আমি জানি না, কারণ এ ব্যাপারে তার সঙ্গে আমার কোনো কথা হয়নি যদিও। তবে আমি ওকে খুব ছোট থেকে চিনি। অনূর্ধ্ব-১৩ পর্যায়ে প্রথম ওকে পেয়েছিলাম। তারপর থেকে ওকে যতটুকু জানি.... স্বাভাবিক পারফর্ম না করতে পারলে মন একটু খারাপ থাকে, চাপ থাকে। তবে এই খেলাগুলো মনে হয় না ওর জন্য চাপের ছিল। তারপরও হয়তোবা মাথা কাজ করে না অনেক সময়।’

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে