কথিত মডেলদের নিয়ে বিব্রত শোবিজ

কথিত মডেলদের নিয়ে বিব্রত শোবিজ
ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা

গত কয়েকদিনে কয়েকজন মডেল ও অভিনেত্রী আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে গ্রেপ্তার হয়েছেন। রোববার রাত ১০টার পর রাজধানীর বারিধারা এলাকা থেকে মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসাকে আটক করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। একই দিন রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে মরিয়ম আক্তার মৌ নামের এক মডেলকে আটক করা হয়। এ সময় তাদের বাসায় ইয়াবা, মদসহ বিভিন্ন নেশাজাতীয় দ্রব্যাদি পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। এ ছাড়াও তাদের বিরুদ্ধে বেশকিছু গুরুতর অভিযোগ রয়েছে বলে জানা গেছে। এর আগে শনিবার গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে আটক হয়েছেন চিত্রনায়িকা একা। রাজধানীর উলনের বাসা থেকে তাকে আটক করেছে হাতিরঝিল থানা পুলিশ। তার বাসা থেকেও ইয়াবা এবং বিদেশি মদ উদ্ধার করা হয়। শোবিজের মূল ধারায় কাজ না করলেও বিতর্কের জন্ম দিয়ে প্রকাশ্যে আসা এসব মডেল-অভিনেত্রীকে নিয়ে বিব্রত শোবিজ। বিষয়টি নিয়ে এরই মধ্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন শোবিজ তারকাদের অনেকে। সোশ্যাল মিডিয়ায়ও ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।

অনেক অভিনয়শিল্পীদের অভিযোগ, খবরের শিরোনামে আসা অভিযুক্ত বেশিরভাগ মডেল-চিত্রনায়িকারই আসলে তেমন কোনো কাজ বা পরিচয় নেই। কোনো শিল্পী সংগঠনের সদস্যও নন, তবুও তিনি অপরাধ করে পুলিশের হাতে ধরা পড়লে বনে যান মডেল বা চিত্রনায়িকা! যা সত্যিকারের অভিনয়শিল্পী, চিত্রনায়িকা বা মডেলদের জন্য বিব্রতকর। এ প্রসঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশ করে শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম করে বলেন, 'ব্যক্তিগত পরিচয়, প্রভাব, বাহ্যিক সৌন্দর্য এবং কিছু ক্ষেত্রে কপালের জোরে দুই একটি বিজ্ঞাপন বা নাটকে কাজ করলেই তাকে মডেল বা অভিনেত্রী বলা যায় কিনা সেই ভাবনাটা এখন জরুরি হয়ে উঠছে।'

গণমাধ্যমের প্রতিও অভিযোগ করেন নাসিম। তিনি বলেন, 'কোথাও পুলিশি অভিযানে ধর-পাকড় হলে অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় খবরের শিরোনাম হয় 'অমুক মডেল বা অভিনেতা/অভিনেত্রী গ্রেপ্তার'; যা অবধারিতভাবে হয়ে ওঠে আকর্ষণীয় সংবাদ।' এ ধরনের শিরোনাম সর্বজন শ্রদ্ধেয়, প্রথিতযশা অভিনেতা-অভিনেত্রী, মডেলসহ বিনোদন মাধ্যমে নিষ্ঠার সাথে কর্মরত সবার জন্য সামাজিকভাবে অত্যন্ত বিব্রতকর এবং অসম্মানজনক বলে মনে করেন অভিনয়শিল্পীদের এই নেতা।

বিষয়টি নিয়ে আক্ষেপ প্রকাশ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চিত্রনায়িকা রত্না জানান, কতিপয় দুয়েকজন নামমাত্র নায়িকা কিংবা মডেলদের জন্য পুরো ইন্ডাস্ট্রি কলুষিত হয়, আমাদের জন্য এটা ক্ষতিকর। আমাদের নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে ভিন্ন ধারণা তৈরি হয়। এ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে টিভি অভিনেত্রী শাহনাজ খুশি ফেসবুকে লিখেছেন, একজন মানুষ হঠাৎ কিছু টাকা, কিংবা ত্রাণ বিতরণ করে, অথবা মেম্বার-চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে, কোনো রাজনৈতিক দলে নাম লেখালেই যেমন রাজনীতিবিদ হয়ে যায় না! তেমনি কেউ কোনো সুন্দরী প্রতিযোগিতায় আবেদন করেছিল, অথবা সম্পর্কের সুবাধে, বা টাকা-ক্ষমতার জোরে ২-৪টা নাটক, বিজ্ঞাপনের কোনো একটা কোনায় অংশগ্রহণ করলেই সে মডেল বা অভিনেত্রী হয়ে যায় না। এখন তো কারও অভিনয় করার শখ থাকলেই, প্রোফাইল ফাইল-আপ করে মডেল-অভিনেত্রী লিখে দেয়। শাহনাজ খুশি আরও লিখেছেন, রাজনীতিবিদ, অভিনেত্রী, মডেল- এ বিশেষণগুলোই বিশেষিত হওয়ার জন্য নিজেকে সমৃদ্ধ করতে হয়! লোভ সংবরণ করে, রোজ একটু একটু করে সীমাবদ্ধ অন্ধকারকে দু-হাতে পেছনে ঠেলে, ঐতিহ্যের আলোর নিচে যেয়ে দাঁড়াতে হয়! মানুষের ভালোবাসার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হয়! প্রতিদিনের চর্চায় বিন্দু বিন্দু করে অভিনেত্রী-রাজনীতিবিদ হয়ে উঠতে হয়! ধারণ করতে, বহন করতে হয় সেটা, উঠাবসা, কথা, পোশাক, রুচি, পরিমন্ডল, পরিবার, দর্শন, ইত্যকার যাবতীয় সব কিছুতে! আপনি বহন করবেন আপনার আদর্শ, আর জনগণ বহন করবে আপনার আকার, প্রকার, সত্য।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে