বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০
walton

হারিয়ে যাচ্ছে ঐতিহ্যের লাঠিখেলা

চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি
  ০৪ মার্চ ২০২৩, ০০:০০

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে কালের বিবর্তনে হারিয়ে যাচ্ছে লাঠি খেলা। এক সময় গ্রামবাংলার জনপ্রিয় খেলা ছিল এই লাঠি খেলা। বর্তমানে লাঠি খেলার নতুন করে কোনো দল তৈরি না হওয়ায় হারিয়ে যেতে বসেছে গ্রামবাংলার ঐতিহ্য-বাহী লাঠি খেলা।

ঢোল আর লাঠির তালে তালে নাচানাচি, অন্যদিকে প্রতিপক্ষের হাত থেকে আত্মরক্ষার কৌশল অবলম্বনের প্রচেষ্টা সংবলিত টানটান উত্তেজনার একটি খেলার নাম লাঠি খেলা। এ খেলা একটি ঐতিহ্যগত মার্শাল আর্ট। এই খেলার জন্য লাঠি প্রায় পাঁচ হাত লম্বা। তবে প্রতিটি লাঠিই হয় প্রায় তৈলাক্ত। প্রত্যেক খেলোয়াড় তাদের নিজ নিজ লাঠি দিয়ে রণকৌশল প্রদর্শন করে। এই খেলায় শিশু থেকে শুরু করে যুবক ও বৃদ্ধ পুরুষরাই লাঠি খেলায় অংশ নিয়ে থাকেন। লাঠি খেলার আসরে লাঠির পাশাপাশি যন্ত্র হিসেবে ঢোল, মন্দিরা ও বিভিন্ন প্রকার বাঁশি ব্যবহার হয়ে থাকে। এ ছাড়া সঙ্গীতের পাশাপাশি এ খেলার সঙ্গে নৃত্য দেখানো হয়। উপজেলার রানীগাঁও, বড়জুষ, কালেঙ্গা গ্রাম এবং চা বাগানে বিভিন্ন খেলাধুলা ও অনুষ্ঠানে প্রায়ই লাঠি খেলা প্রদর্শনী দেখা যেত। এসব এলাকায় লাঠি খেলার জন্য অনেক সংগঠন ছিল। বড়জুষ গ্রামের প্রবীণরা বলেন, এ খেলাটি দিন দিন বিলুপ্তি হওয়ার কারণে এর খেলোয়াড় সংখ্যাও কমে যাচ্ছে। তৈরি হচ্ছে না কোনো নতুন খেলোয়াড়। আর পুরনো অভিজ্ঞ খেলোয়াড়রা অর্থাভাবে প্রসার ঘটাতে পারছেন না এ খেলায়। অনেকে বলেন, এসব লাঠি খেলার মাধ্যমে বিনোদন পেলে তরুণরা মাদক ছেড়ে এই বিনোদনে আগ্রহী হতো। এতে তারা শারীরিক এবং মানুষিকভাবে স্বয়ংসম্পন্ন হবে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে