শৈত্যপ্রবাহ থাকবে আরও দুদিন

শৈত্যপ্রবাহ থাকবে আরও দুদিন

রাঙামাটি, শ্রীমঙ্গল ও পঞ্চগড়ের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া শৈত্যপ্রবাহের প্রভাব পড়ছে রাজধানী ঢাকাসহ পার্শ্ববর্তী অঞ্চলেও। গত সপ্তাহের শেষদিকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির পর এখন ঘন কুয়াশার সঙ্গে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। শনিবার দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে শ্রীমঙ্গলে ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ সময় ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে আরও অন্তত দুদিন মৃদু শৈত্যপ্রবাহ থাকবে বলে আভাস দিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, চলতি সপ্তাহে রাতের তাপমাত্রা বাড়লেও জানুয়ারির শেষে আরেক দফা শীতের দাপট থাকবে। এদিকে রাঙামাটি, শ্রীমঙ্গল ও পঞ্চগড় অঞ্চলের উপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। এই তিন অঞ্চলে মৃদু শৈত্যপ্রবাহের প্রভাবে রাজধানীসহ অনেক জায়গায় ১০-১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ও ঘন কুয়াশা থাকায় বেশ শীত অনুভূত হচ্ছে। যা আরও দুদিন অব্যাহত থাকতে পারে। ৩০ জানুয়ারির দিকে তাপমাত্রা কমার আভাস রয়েছে। এ সময় আরেক দফা মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

এদিকে গত দুমাস ধরে উত্তরের জনপদে শীতের দাপট অব্যাহত রয়েছে।

গত ১৮-২৩ ডিসেম্বর এবং ২৬-৩১ ডিসেম্বর রংপুর, রাজশাহী, কুষ্টিয়া ও যশোর অঞ্চলে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যায়।

১৯ ডিসেম্বর কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ৬ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল। ১৫ জানুয়ারি বদলগাছিতে থার্মোমিটারের পারদ নেমে যায় ৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে, যা চলতি মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

বড় এলাকাজুড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমে ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে চলে এলে মৃদু; ৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে হলে মাঝারি এবং ৪ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে হলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বলে ধরা হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে