বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১
১৬২৬ কোটি টাকায় ২শ' রেলওয়ে বগি ও ১২১ কোটি টাকায় ৩০ হাজার টন ইউরিয়া সার কেনা হবে

৩৪৭ কোটি টাকার ডাল ও তেল কিনছে সরকার

যাযাদি রিপোর্ট
  ০৪ এপ্রিল ২০২৪, ০০:০০

উন্মুক্ত দরপত্র (জাতীয়) পদ্ধতিতে ৩৪৭ কোটি টাকার ডাল-তেল, ২০০ রেলওয়ে বগি ও ৩০ হাজার টন ইউরিয়া সার কেনার জন্য পাঁচটি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে সরকার। এতে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ২ হাজার ৮৪ কোটি ৪২ লাখ ৮৯ হাজার ৫শ' টাকা। এছাড়া ব্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে আরও তিনটি প্রকল্পের। বুধবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এসব প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সমন্বয় ও সংস্কার সচিব মাহমুদুল হোসাইন খান সাংবাদিকদের বিস্তারিত জানান। সমন্বয় ও সংস্কার সচিব জানান, টিসিবির জন্য স্থানীয়ভাবে উন্মুক্ত দরপত্র (জাতীয়) পদ্ধতিতে ১ কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ১৬৮ কোটি ২৭ লাখ ৮০ হাজার টাকা। প্রতি লিটার সয়াবিনের দাম পড়বে ১৫২ দশমিক ৯৮ টাকা, যা আগে ছিল ১৫৫ দশমিক ৯৭ টাকা। দেশীয় প্রতিষ্ঠান সিটি এডিবল ওয়েল লিমিটেডের কাছ থেকে এ তেল কেনা হবে।

তিনি বলেন, 'একই পদ্ধতিতে ৫০ লাখ লিটার রাইস ব্র্যান তেল ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ৭৬ কোটি টাকা। প্রতি কেজি রাইস ব্র্যান তেলের দাম পড়বে ১৫২ টাকা, যা আগে ছিল ১৫৪ দশমিক ৯৭ টাকা। মজুমদার ব্র্যান অয়েল মিলস লিমিটেড এবং মজুমদার প্রোডাক্টস লিমিটেডের কাছ থেকে এ তেল কেনা হবে।'

অন্য এক প্রস্তাবে উন্মুক্ত দরপত্র (জাতীয়) পদ্ধতিতে ১০ হাজার মেট্রিক টন মসুর ডাল (৫০ কেজির বস্তায়) ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে জানিয়ে মাহমুদুল হোসাইন খান বলেন, 'এতে মোট ব্যয় হবে ১০২ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। প্রতি কেজি ডালের দাম পড়বে ১০২ দশমিক ৭৫ টাকা, যা আগে ছিল ১০৪ দশমিক ৭০ টাকা। দেশীয় প্রতিষ্ঠান সেনা কল্যাণ সংস্থা থেকে ৫ হাজার মেট্রিক টন ও নাবিল নাবা ফুড লিমিটেড থেকে ৫ হাজার মেট্রিক টন মসুর ডাল কেনা হবে।'

সমন্বয় ও সংস্কার সচিব মাহমুদুল হোসাইন খান বলেন, 'বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য ২০০ ব্রডগেজ প্যাসেঞ্জার ক্যারেজ কেনার প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে হবে ১ হাজার ৬২৬ কোটি টাকা ৪৯ লাখ ৭২ হাজার ১৯৫ টাকা।

তিনি বলেন, 'ইউরোপিয়ান ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকের (ইআইবি) অর্থায়নে বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য ২০০ ব্রডগেজ প্যাসেঞ্জার ক্যারেজ সংগ্রহের প্রস্তাবটি টেবিলে উপস্থাপন করা হয়। ভারতীয় প্রতিষ্ঠান বিআইটিইএস লিমিটেড ব্রডগেজ প্যাসেঞ্জার ক্যারেজগুলো সরবরাহ করবে।

সচিব বলেন, 'সভায় ২০২৩-২৪ অর্থবছরে কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কো.লি. (কাফকো) থেকে ৩০ হাজার মে.টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ক্রয়ের একটি প্রস্তাবে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রতি মে.টন সারের দাম ৩৬৬.৩৭ মা.ডলার হিসেবে মোট ব্যয় হবে ১২০ কোটি ৯০ লাখ ৩৭ হাজার ৫০০ টাকা।

ব্যয় বাড়ল তিন প্রকল্পের

সমন্বয় ও সংস্কার সচিব জানান, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে জাপানিজ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের জন্য অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের পরামর্শক প্রতিষ্ঠান, ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় পুলিশ সদস্যদের জন্য ৯টি আবাসিক টাওয়ার ভবন নির্মাণ এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের সদর উপজেলায় মহানন্দা নদী ড্রেজিং ও রাবার ড্যাম (২য় সংশোধিত)' প্রকল্পের ব্যয় বাড়ানোর অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

'নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে জাপানিজ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের জন্য অবকাঠামো উন্নয়ন' প্রকল্পের পরামর্শক প্রতিষ্ঠান হিসেবে যৌথভাবে জাপানের নিপ্পন কোই কোই লিমিটেড এবং কোই রিচার্স অ্যান্ড কনসাল্টিং ইনকরপোরেশন সঙ্গে ১৭২ কোটি ১৭ লাখ ৯৭৯ টাকায় নিয়োগের চুক্তি করা হয়।

চুক্তি অনুসারে কাজ চলমানকালে বাস্তব অবস্থা বিবেচনায় ডিজাইন পরিবর্তন হওয়ায় কাজ বৃদ্ধি পায়। ফলে ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ২৭ কোটি ৭ লাখ ৭১ হাজার ৩৬৬ টাকা ব্যয় বৃদ্ধির প্রস্তাব আসে। এই ব্যয় বৃদ্ধির প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

অন্যদিকে 'ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় পুলিশ সদস্যদের জন্য ৯টি আবাসিক টাওয়ার ভবন নির্মাণ' প্রকল্পের পূর্ত কাজের ভেরিয়েশন প্রস্তাবে নিয়ে আসে গৃহায়ণ ও ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়। এই প্রস্তাবও অনুমোদন দিয়েছে কমিটি।

প্রকল্পের আওতায় পূর্বাচল পুলিশ লাইনে ৬৫০ বর্গফুট আয়তনের ফ্ল্যাট বিশিষ্ট ২০-তলা ভবন এবং ১০০০ বর্গফুট আয়তনে ফ্ল্যাট বিশিষ্ট ২০-তলা ভবন নির্মাণ কাজের জন্য নূরানী কন্সট্রাকশন লিমিটেডের সঙ্গে ১৫২ কোটি ৫৬ লাখ ৫০ হাজার ৮ টাকায় ক্রয়ের চুক্তি হয়। চুক্তি অনুসারে কাজ চলমান অবস্থায় টেন্ডারভুক্ত/টেন্ডার বহির্ভূত কিছু আইটেম হ্রাস/বৃদ্ধি হওয়ায় ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ১৩ কোটি ৭২ লাখ ৬৩ হাজার ৪৭৫ টাকা ব্যয় বৃদ্ধির প্রস্তাবে করা হয়। তার প্রেক্ষিতে এই ব্যয় বাড়ানোর অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া 'চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সদর উপজেলায় মহানন্দা নদী ড্রেজিং ও রাবার ড্যাম (২য় সংশোধিত)' প্রকল্পের প্যাকেজ নং-ডবিস্নউপি-০১ এর পূর্ত কাজের ভেরিয়েশন প্রস্তাব নিয়ে আসে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়। এই প্রস্তাবটিও অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা কমিটি।

প্রকল্পের পূর্ত কাজ কাজ যৌথভাবে বিআইসি এবং এসএসআরআই'র সঙ্গে ১৫৫ কোটি ৪৩ লাখ ৩৫ হাজার ১৯৫ টাকায় ক্রয়ের চুক্তি করা হয়। চুক্তি অনুসারে কাজ চলমান অবস্থায় বাস্তব অবস্থার প্রেক্ষিতে নকশার পরিবর্তনের কারণে টেন্ডারভুক্ত/টেন্ডার বহির্ভূত কিছু আইটেম হ্রাস/বৃদ্ধি হওয়ায় ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ২৪ কোটি ৬১ লাখ ৯৭ হাজার ৩২০ টাকা ব্যয় বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়। তার প্রেক্ষিতে এই ব্যয় বাড়ানোর অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে