মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১

ভারতের নতুন কোচ গম্ভীর

ক্রীড়া ডেস্ক
  ১১ জুলাই ২০২৪, ০০:০০
ভারতের নতুন কোচ গম্ভীর

অবশেষে এলো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। বিসিসিআই সেক্রেটারি জয় শাহ মঙ্গলবার ঘোষণা করেছেন, ভারতের পুরুষ সিনিয়র দলের প্রধান কোচ হলেন গৌতম গম্ভীর। আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ও ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনালে তোলা এবং সবশেষ টি২০ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন দলের কোচ রাহুল দ্র্রাবিড়ের উত্তরসূরি হচ্ছেন তিনি।

আগে কোচিং করানোর অভিজ্ঞতা নেই গম্ভীরের। তবে কলকাতা নাইট রাইডার্সসহ একাধিক আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজির মেন্টর ছিলেন তিনি। সম্প্রতি তার হাত ধরে ১০ বছর পর আইপিএলে চ্যাম্পিয়ন হয় সাবেক ওপেনার। জয় শাহ এক্স-এ লিখেছেন, 'অনেক আনন্দের সঙ্গে আমি ভারতীয় ক্রিকেট দলের নতুন প্রধান কোচ হিসেবে মিস্টার গৌতম গম্ভীরকে স্বাগত জানাচ্ছি। আধুনিক দিনের ক্রিকেট দ্রম্নত পরিবর্তিত হচ্ছে, গৌতম এই পরিবর্তন খুব কাছ থেকে দেখেছেন। তার ক্যারিয়ারে বিভিন্ন অভিজ্ঞতা অর্জন হয়েছে, আমি বিশ্বাস করি, ভারতীয় ক্রিকেটকে সামনে এগিয়ে নিতে গৌতম আদর্শ।'

বিসিসিআই কর্মকর্তা আরও লিখেছেন, 'টিম ইন্ডিয়ার জন্য তার স্পষ্ট ভিশন,

বিশাল অভিজ্ঞতার কারণে তাকে এই

রোমাঞ্চকর ও সবচেয়ে আকাঙ্ক্ষিত কোচিংয়ের ভূমিকায় সঠিক ব্যক্তি হিসেবে বসিয়েছে। তার এই নতুন যাত্রায় বিসিসিআই পূর্ণ সমর্থন করে।'

গত মাসে টি২০ বিশ্বকাপের পর দ্রাবিড় সরে দাঁড়ান। শোনা যাচ্ছে, তিনি গম্ভীরের ছেড়ে আসা কলকাতার মেন্টরের দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন। গম্ভীরের

প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট সাদা

বলের শ্রীলংকা সফর। এই

মাসের শেষ দিকে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি২০ খেলবে দুই দল।

গম্ভীরের সঙ্গে বিসিসিআই কত বছরের চুক্তি করেছে, সেটা জানায়নি। তবে কোচের আবেদনপত্র চাওয়ার আগে তারা জানায়, জুলাই থেকে সাড়ে তিন বছরের জন্য নিয়োগ দেওয়া হবে নতুন কোচকে, মানে ২০২৭ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত।২০২৩ সালের নভেম্বরে কলকাতায় যোগ দেওয়ার আগে গম্ভীর লখনউ সুপার জায়ান্টসের মেন্টর ছিলেন। ২০২২ ও ২০২৩ সালে তার সময় দুটো আসরেই পেস্ন অফ খেলে দলটি।

তবে খেলোয়াড়ি ক্যারিয়ার শেষে এটাই হতে যাচ্ছে গম্ভীরের প্রথম কোচ হওয়ার অভিজ্ঞতা। খেলোয়াড় হিসেবে তার অর্জন ২০০৭ সালের টি২০ বিশ্বকাপ ও ২০১১ বিশ্বকাপ। দুটো টুর্নামেন্টের ফাইনালেই দেশের সেরা স্কোরার ছিলেন। ২০১২ ও ২০১৪ সালে তার নেতৃত্বেই আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল কলকাতা।

৪২ বছর বয়সি গম্ভীর তার প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বলেছেন, 'আমার তেরাঙ্গা, জনগণ ও দেশকে সেবা করতে পারা সত্যিই সম্মানের। আমি এই সুযোগে রাহুল দ্রাবিড় ও তার সাপোর্ট স্টাফদের অভিনন্দন জানাতে চাই তাদের অনুকরণীয় পথচলার জন্য। টিম ইন্ডিয়ার প্রধান কোচের দায়িত্ব নিতে পেরে আমি সম্মানিত ও রোমাঞ্চিত।'

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে