শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ৮ মাঘ ১৪২৭

এক দশকে স্বর্ণের দাম বেড়েছে ৮৬০ ডলার

এক দশকে স্বর্ণের দাম বেড়েছে ৮৬০ ডলার

বর্তমানে স্বর্ণের বাজারে তুমুল চাঙ্গা ভাব বজায় রয়েছে। কোনোভাবেই লাগাম টানা সম্ভব হচ্ছে না মূল্যবান ধাতুটির দামে। এ পরিস্থিতিতে গত এক দশকে স্বর্ণের বাজার পরিস্থিতি বিশ্লেষণ করলে দেখা যাবে বেশিল ভাগ সময় চাঙ্গা ভাবের মধ্য দিয়ে সময় পার করেছে ধাতুটি। এমনকি গত এক দশকের ব্যবধানে আন্তর্জাতিক বাজারে মূল্যবান ধাতুটির দাম বেড়েছে আউন্সে প্রায় ৮৬০ ডলার। বর্তমানে ইতিহাসের সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে স্বর্ণের দাম। ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিলের (ডবিস্নউজিসি) প্রাইস ইনডেক্স বিশ্লেষণ করে এ তথ্য পাওয়া গেছে। খবর ডবিস্নউজিসি।

প্রতিষ্ঠানটির তথ্য অনুযায়ী, ২০১০ সালের ৬ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের স্পট মার্কেটে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ১ হাজার ২০৭ ডলার ৮০ সেন্ট। এর পর থেকে ২০১২ সালের অক্টোবর পর্যন্ত মূল্যবান ধাতুটির দাম বাড়তির দিকে ছিল। মাঝে ২০১১ সালের সেপ্টেম্বরে প্রতি আউন্স স্বর্ণের স্পটমূল্য ১ হাজার ৮৯৫ ডলারে উঠেছিল। তবে ২০১২ সালের অক্টোবরের শুরুতে প্রতি আউন্স স্বর্ণের স্পটমূল্য ছিল ১ হাজার ৭৯০ ডলারের ওপরে।

এরপর দীর্ঘদিন স্বর্ণের দামে কমতি ভাব বজায় ছিল। ২০১৩ সালের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের স্পট মার্কেটে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ১ হাজার ৬৫০ ডলারের নিচে। ২০১৫ সালের নভেম্বর নাগাদ তা আউন্স প্রতি ১ হাজার ৮১ ডলারে নেমে যায়। এর পর থেকে ধীরে ধীরে বেড়েছে স্বর্ণের দাম।

২০১৬ সালের জুলাইয়ে যুক্তরাষ্ট্রের স্পট মার্কেটে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৩৫০ ডলারে উন্নীত হয়। মূল্যবৃদ্ধির ধারাবাহিকতায় গত বছরের আগস্টে যুক্তরাষ্ট্রের স্পট মার্কেটে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৫০০ ডলার ছাড়িয়ে যায়। এর পর থেকে স্বর্ণের দামে দ্রম্নত উত্থান দেখেছে বিশ্ববাসী। ২০১৯ সালের শেষ নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রের স্পট মার্কেটে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ওঠে ১ হাজার ৫১১ ডলারের ওপরে।

চলতি বছরটা স্বর্ণের বাজারে রেকর্ডের বছর। বছরের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের স্পট মার্কেটে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ১ হাজার ৫৭৫ ডলারের নিচে। তবে নভেল করোনাভাইরাসের মহামারি স্বর্ণের চাহিদা বাড়িয়ে দিলে দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে শুরু করে। মার্চে যুক্তরাষ্ট্রের স্পট মার্কেটে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৬০০ ডলার ছাড়িয়ে যায়। এপ্রিলে তা আরও বেড়ে আইন্সপ্রতি ১ হাজার ৭০০ ডলার ছাড়ায়।

ওই সময় বিশ্লেষকরা বলেছিলেন, স্বর্ণের আউন্স ২ হাজার ডলার ছাড়িয়ে যাওয়ার জোরালো সম্ভাবনা রয়েছে। এ সম্ভাবনা সত্য হয়েছে। গত ৬ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের স্পট মার্কেটে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম উঠেছে ২ হাজার ৬৭ ডলার ২০ সেন্টে। ডবিস্নউজিসি বলছে, ইতিহাসে এটাই স্বর্ণের সবচেয়ে বেশি দাম। সেই হিসাবে, এক দশকে মূল্যবান ধাতুটির দাম বেড়েছে আউন্স প্রতি প্রায় ৮৬০ ডলার।

সাধারণত বিশ্ব অর্থনীতিতে অনিশ্চয়তা কিংবা ভূরাজনৈতিক উত্তেজনা এই দুই কারণে স্বর্ণের বাজার চাঙ্গা হয়। বর্তমান বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে দুটি উপাদান বিদ্যমান। করোনা মহামারিতে চরম অনিশ্চিত অবস্থার মধ্য দিয়ে সময় পার করছে বিশ্ব অর্থনীতি। অন্যদিকে চীন-ভারত, উত্তর-দক্ষিণ কোরিয়া, চীন-মার্কিন ভূরাজনৈতিক উত্তেজনা আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের রেকর্ড মূল্য বৃদ্ধিতে প্রভাবক হিসেবে কাজ করেছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে