logo
বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই ২০২০, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

  বিনোদন রিপোর্ট   ০৬ জুন ২০২০, ০০:০০  

পারিশ্রমিক কমিয়ে শাকিবের তদবির!

পারিশ্রমিক কমিয়ে শাকিবের তদবির!
শাকিব খান
বলতে দ্বিধা নেই, দেশীয় চলচ্চিত্রে বর্তমানে সবচেয়ে শীর্ষ স্থানীয় তারকা শাকিব খান। প্রায় এক দশক ধরে রুগ্‌ণ চলচ্চিত্র টেনে নিয়ে আসছেন এ অভিনেতা। বিশেষ করে চিত্রনায়ক মান্না মারা যাওয়ার পর একাই রাজত্ব করছেন তিনি। পারিশ্রমিকের দিক থেকেও তার ধারেকাছেও নেই অন্য কোনো তারকা। গত কয়েক বছর ধরে তার যে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে, সেই ছবিটিই হিট কিংবা সুপার হিট ব্যবসা করেছে। এমনও হয়েছে, শাকিবের ছবি মুক্তি পেলে তার আগে পরে কোনো ছবি মুক্তি দিতে সাহস পেতেন না নির্মাতারা। কিন্তু গত বছর ধরে হঠাৎ করেই ধস নামার আলামত দেখা দিয়েছে শাকিবের একক রাজত্বে। শাকিব খান অভিনীত একের পর এক ছবি ফ্লপ যাওয়ায় নতুন হিসাব কষছেন নির্মাতারা। গত বছরের একমাত্র 'পাসওয়ার্ড' ছাড়া এখন পর্যন্ত সফলতার মুখ দেখেনি শাকিব খান। এ কারণে ক্রমেই ছবিশূন্য হয়ে পড়ছেন ঢালিউডের 'কিং খান'খ্যাত এ তারকা। তাছাড়া চলচ্চিত্রের এ দুঃসময়ে ৫০ লাখ টাকা পারিশ্রমিক দিয়ে শাকিব খানকে নিয়ে কাজ করা মূর্খামি বলেই ভাবছেন লগ্নিকারকরা। ফলে অনেকটাই বেকায়দায় পড়েছেন শাকিব খান।

এদিকে মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে অন্যান্য সেক্টরের মতো ঢাকাই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে প্রভাব পড়েছে। যদিও প্রায় আড়াই মাস বন্ধ থাকার পর শুটিংয়ের অনুমতি পেলেও করোনার প্রভাব না যাওয়া পর্যন্ত অনেক প্রযোজকই সিনেমা নির্মাণ করবেন না। এতে করে ঢাকাই চলচ্চিত্রের অনেক শিল্পী ও কলাকুশলীরাই বিপাকে। করোনার প্রভাব পড়েছে শাকিব খানের উপরেও। হাতে তেমন কোনো ছবি না থাকায় বাধ্য হয়ে পারিশ্রমিক অর্ধেকে নামিয়ে এনে নতুন ছবির সন্ধান করছেন শাকিব- এমনই কানাঘুষা চলছে চলচ্চিত্র পাড়ায়। বিশেষ একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, ৬০ লাখ থেকে পারিশ্রমিক ২০-২৫ লাখে নামিয়ে চলচ্চিত্রের শীর্ষ প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার ছবিতে কাজ করতে চাচ্ছেন তিনি। যদিও কিছুদিন ধরেই শাপলা মিডিয়ার সঙ্গে দা-মাছ সম্পর্ক চলছে শাকিবের সঙ্গে। এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে শাকিব কাজ করেছেন ক্যাপ্টেন খান, আমি নেতা হবো, শাহেনশাহ, বিদ্রোহীসহ বেশ কিছু ছবিতে। কিন্তু একটা পর্যায়ে প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধারের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হলে নিজের ছেলেকে নায়ক করে চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে থাকেন প্রযোজক। তারপরেও এ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে শাকিব আবারও কাজ করতে চান বলে জানা গেছে। তবে এই নায়ককে নিতে না কি ওই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার আগ্রহ দেখাচ্ছেন না।

অন্যদিকে চলতি বছরে শাকিবের সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত 'বীর' ছবিটি ব্যবসায়িকভাবে সফল না হওয়াতে চিন্তার ভাঁজ তার কপালে। করোনায় সিনেমা হল বন্ধ থাকায় ঈদের সিনেমায় শাকিব যে সাফল্যের দেখা পেয়ে থাকেন এবার সেটিও হয়ে ওঠেনি। ফলে সুপারস্টারের রাজত্ব হারানোর শঙ্কা দেখা দিয়েছে। প্রশ্ন উঠেছে এক যুগের বেশি এককভাবে শীর্ষ নায়কের স্থান দখল করে রাখা শাকিব কি ভবিষ্যৎ নিয়ে শঙ্কিত?

চলচ্চিত্র নির্মাণ বন্ধ, যৌথ প্রযোজনার সিনেমা নির্মাণ আইনের কারণে বন্ধে কলকাতার ছবিতেও কাজ হচ্ছে না শাকিবের। চলচ্চিত্র পাড়ায় গুঞ্জন উঠেছে নতুন ছবিতে কাজের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন শাকিব। কয়েকটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল মারফত জানা গেছে, শাকিব খানের একাধিক ছবির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সুসম্পর্ক তৈরির জন্যই নিজের পারিশ্রমিক এত কমিয়ে দিয়েছেন তিনি।

তবে এসব খবর ভিত্তিহীন বলে শাকিবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এগুলো মনগড়া খবর। এগুলো নিয়ে কথা বলতে চাই না। তবে শাকিবের ঘনিষ্ঠ এক সূত্র জানায়, শাপলা মিডিয়ার সঙ্গে কাজের ব্যাপারে শাকিবের কোনো কথাই হয়নি। তাহলে পারিশ্রমিক কমার প্রশ্ন আসছে কোথা থেকে আমার জানা নেই। কিছুদিন ধরে শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার শাকিবের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন আমি যতদূর জানি; তবে তিনি এখনো কথাই বলতে পারেননি শাকিবের সঙ্গে। কারণ, শাকিব খান কোনোভাবেই মানহীন সিনেমা করতে ইচ্ছুক নন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে