logo
শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  বিনোদন রিপোর্ট   ০৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

নিয়ন্ত্রণে আসছে বিদেশি সিরিয়াল

নিয়ন্ত্রণে আসছে বিদেশি সিরিয়াল
তুর্কি সিরিয়াল 'সুলতান সোলেমান' এর একটি দৃশ্য
দীর্ঘদিন ধরেই দেশের টিভি চ্যানেলগুলোতে বিদেশি সিরিয়াল প্রচার হয়ে আসছে। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে আসছেন ছোটপর্দার অভিনয়শিল্পী, নির্মাতা ও কলাকুশলীরা। টিভি চ্যানেল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক হয়েছে তাদের। এমনকি রাজপথেও আন্দোলন করেছেন শিল্পী, পরিচালক ও প্রযোজকসহ বিভিন্ন সংগঠনের সংগঠনগুলো। তবে বিলম্বে হলেও অবশেষে নিয়ন্ত্রণে আসছে এসব সিরিয়ালের প্রচারে। সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক এক প্রজ্ঞাপনও জারি করা হয়েছে। বিদেশি সিরিয়াল প্রচারের আগে তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রিভিউ কমিটি থেকে অনুমোদন নিতে হবে। ৯ সদস্যবিশিষ্ট এই কমিটিতে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবকে (সম্প্রচার) সভাপতি এবং উপসচিবকে (টিভি ২) সদস্য সচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এখানে সদস্য হিসেবে রয়েছেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক, জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক, নাট্যব্যক্তিত্ব মামুনুর রশীদ, সারা যাকের এবং অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্স, ডিরেক্টরস গিল্ড ও অভিনয় শিল্পী সংঘ থেকে একজন করে প্রতিনিধি। এই কমিটি ডাবিংকৃত কোনো বিদেশি অনুষ্ঠান বা সিরিয়াল দেখার পর অনুমতি দিলে তবেই সেটি চ্যানেলে প্রচারের যোগ্যতা পাবে; অন্যথায় নয়। বিদেশি সিরিয়াল প্রচারে প্রকাশিত নীতিমালা নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন টিভি নাটকের বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা।

ডিরেক্টরস গিল্ডের পক্ষ থেকে সংগঠনটির সভাপতি সালাহউদ্দিন লাভলু বলেন, 'আমরা বিষয়টি নিয়ে তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছিলাম। সেই প্রেক্ষিতেই এই প্রিভিউ কমিটি গঠিত হয়েছে। ভালো লাগছে। তবে এ ব্যাপারে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো কিছু জানানো হয়নি আমাকে বা সংগঠনকে। জানার পর সিদ্ধান্ত নেবো পরিচালকদের প্রতিনিধি হিসেবে কে যাবো প্রিভিউ কমিটিতে।'

এদিকে টিভি নাটকের শিল্পীদের সংগঠন অভিনয় শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম বলেন, 'খুবই ভালো লাগছে যে অবশেষে বিদেশি অনুষ্ঠান ও সিরিয়াল ডাবিং করে প্রচারের ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম হচ্ছে। প্রিভিউ কমিটিটা দরকার ছিল। সবার সম্মিলিত অংশগ্রহণে দেশের সংস্কৃতির স্বার্থ রক্ষা পাবে বলে মনে করি আমি। সেই জায়গা থেকে অভিনয় শিল্পী সংঘকে এই কমিটিতে গুরুত্ব দেয়ার জন্য তথ্যমন্ত্রী মহোদয়ের কাছে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি পেলে সিদ্ধান্ত নেবো আমাদের প্রতিনিধি কে হবেন। তবে সংগঠনের সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদকের মধ্য থেকেই একজন প্রিভিউ কমিটিতে অংশ নেবেন।'

নাসিম আরও বলেন, 'আগে চ্যানেলগুলো তাদের ইচ্ছেমতো সময়ে বিদেশি সিরিয়াল প্রচার করত। আমরা মন্ত্রণালয়ে জানিয়েছিলাম, সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১২ পর্যন্ত এই পিকআওয়ারে কোনো বিদেশি সিরিয়াল প্রচার করা যাবে না। এই সময়ে আমাদের চ্যানেলগুলোতে আমাদের নাটক-সিনেমা ও বিভিন্ন অনুষ্ঠান প্রচার করবে। প্রজ্ঞাপনে এ বিষয়টি নিয়ে কিছু আমার চোখে পড়েনি। তবে যেহেতু কাজ শুরু হচ্ছে এখন আমাদের এই দাবিটিও গুরুত্ব পাবে আশা করি। প্রিভিউ কমিটির মিটিংয়ে প্রচারের সময়টি নিয়েও আলোচনা করা হবে।'

টেলিভিশন নাট্যকার সংঘের সভাপতি নাট্যকার মাসুম রেজা বলেন, 'আমাদের দাবি ছিল টেলিভিশনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা। আমাদের প্রধান দাবি, বিদেশি সিরিয়াল বন্ধ করা নয়, সরকারি নিয়ম মেনে যেন আনা হয়, তা দেখতে বলেছিলাম। অবশেষে একটি নিয়মের মধ্যে আসছে। এটা ভালো খবর।'

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে উপসচিব রোজিনা সুলতানা স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, প্রয়োজন হলে প্রতি সপ্তাহে ২-৩ দিন তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে প্রিভিউ অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি প্রিভিউ অনুষ্ঠানে কমিটির ৭৫ ভাগ সদস্যদের উপস্থিত থাকতে হবে। পরপর তিনটি প্রদর্শনীতে যুক্তিসংগত কোনো কারণ ছাড়া কোনো সদস্য অনুপস্থিত থাকলে তার সদস্য পদ বাতিল বলে গণ্য হবে। যে কোনো কারণে কোনো সদস্য পদ শূন্য হলে সভাপতি নতুন সদস্য অন্তর্ভুক্ত করতে প্রস্তাব করবেন। এই কমিটিতে দায়িত্ব পাওয়া সদস্যরা সরকারি নিয়ম অনুযায়ী সম্মানিও পাবেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে