logo
বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬

  বিনোদন রিপোর্ট   ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

দীর্ঘদিন পর আফজাল-সুবর্ণার রসায়ন

দীর্ঘদিন পর আফজাল-সুবর্ণার রসায়ন
আফজাল হোসেন ও সুবর্ণা মুস্তাফা
আফজাল হোসেন ও সুবর্ণা মুস্তাফা। এদেশে টেলিভিশন নাটকে জুটিপ্রথা গড়ে ওঠে মূলত তাদের মাধ্যমেই। ১৯৭৫ সালে বিটিভিতে প্রচারিত রবীন্দ্রনাথের 'সুভা' নাটকে আফজাল-সুবর্ণা প্রথম অভিনয় করেছিলেন আব্দুলস্নাহ আল মামুনের প্রযোজনায়। তারপর একে একে 'রক্তে আঙুর লতা', 'পারলে না রুমকি'সহ বেশকিছু নাটকে দুজনে জুটি হয়ে অভিনয় করে দর্শকের মনে স্থায়ী জুটি হিসেবে স্থান করে নিয়েছিলেন তারা। এরপর সময়ের আবর্তে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কাজের পরিধিও কমে যায় দুজনের। কিন্তু তারপরও দর্শকের অনুরোধে মাঝে মাঝেই একসঙ্গে অভিনয় করতে দেখা গেছে তাদের। ২০১২ সালে 'প্রেম বাঁচিতে জানে' নামের একটি টেলিছবিতে অভিনয়ের পর সর্বশেষ তারা ২০১৮ সালে ঈদের একটি নাটক ও টেলিফিল্মে কাজ করেন তারা। নাম 'নুরুল আলমের বিয়ে' এবং 'অক্ষর থেকে উঠে আসা মানুষ'। এরপর ফের লম্বা বিরতি।

নতুন খবর হচ্ছে, আবারও একসঙ্গে অভিনয়ের মাঠে দেখা মিলছে জনপ্রিয় এই তারকা জুটিকে। তবে কোনো টিভি নাটকে নয়, মঞ্চনাটকে। অচিরেই দেশের বাইরে একটি মঞ্চনাটকে অভিনয় করবেন তারা। তথ্যটি জানিয়েছেন সুবর্ণা মুস্তাফা নিজেই। যদিও বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি, তবে পুরোদমে প্রস্তুতি চলছে বলে জানান এ অভিনেত্রী। তিনি জানান, এখন নানা কাজে ব্যস্ত হয়ে গেছি। বিশেষ করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর ইচ্ছে থাকলেও অভিনয়ে সময় দিতে পারি না। কিন্তু অভিনয়কে ছেড়ে থাকাও অসম্ভব। এ কারণেই মাঝে মাঝে দুয়েকটা কাজ করি। আমার বিশ্বাস, আফজাল হোসেন ও আমার অভিনয় আগের মতোই বিনোদন দেবে দর্শককে।

সুবর্ণা মুস্তাফা বলেন, 'আফজালের সঙ্গে আমার সখ্য দীর্ঘদিনের। বলা যায়, আমরা একসঙ্গে বড় হয়েছি, একই থিয়েটারের হয়ে মঞ্চে অভিনয় করেছি। সুতরাং তার সঙ্গে যে কোনো নাটকে কাজ করতে গেলে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। কাজের ক্ষেত্রে আফজাল আমার কাছে এক বিশ্বাসের নাম, ভরসারও স্থান। অনেক সময় আমাদের মতভেদে ভিন্নতাও দেখা দেয়, ঝগড়াও করি। কিন্তু কাজের সময় তা ভুলে গিয়ে কাজটিই সর্বোচ্চ মনোযোগ দিয়ে করি। আফজাল অনেক কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকে। মনোযোগ দিয়ে অভিনয় করতে পারবে না বলে অভিনয়ে নিয়মিত নয়। তবে যখন অভিনয় করে তখন পুরো মনোযোগ দিয়েই করে।'

এদিকে সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে সুবর্ণা মুস্তাফা অভিনীত চলচ্চিত্র 'গন্ডি'। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন কলকাতার শক্তিশালী অভিনেতা সব্যসাচী চক্রবর্তী। এর মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিন পর চলচ্চিত্রে ফিরলেন তিনি। চলচ্চিত্রটিতে সুবর্ণার সাবলীল অভিনয় প্রশংসা পাচ্ছে দর্শক মহলে। শুধু তাই নয়, সব্যসাচীও সুবর্ণার অভিনয়ের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। বর্তমান সময়ের চলচ্চিত্র ও নির্মাণ এবং পরিবেশ নিয়ে সুবর্ণা বলেন, 'সত্যি কথা বলতে ছোটপর্দা বলেন, আর বড় পর্দা বলেন- সব খানেই আগের সেই পরিবেশ নেই। পুরোটাই পাল্টে গেছে। আমরা আমাদের নিজস্ব ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি ভুলে তামিল-তেলেগুর অ্যাকশন ছবির নকল করছি। তাতে আমাদের আবেগ- অনুভূতিগুলো অপ্রকাশিতই থেকে যাচ্ছে। সবার আগে সুন্দর একটা গল্প তৈরি করতে হবে। আমাদের নিজস্ব সংস্কৃতি ও আবেগ-অনুভূতির গল্প। আর নাটকের ক্ষেত্রে সবার আগে টিআরপি নামের ভূতটা তাড়াতে হবে সবার আগে। পাশাপাশি এজেন্সির হাত থেকে নাটককে রক্ষা করতে হবে। তবেই হয়তো কিছুটা উন্নতির লক্ষণ দেখা যাবে।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে