logo
শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২৬ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০  

রিয়ালের হোঁচট, জুভেন্টাসের জয়

রিয়ালের হোঁচট, জুভেন্টাসের জয়
কিয়েলিস্ননি গোল করায় অভিনন্দন জানাচ্ছেন রোনালদো
ক্রীড়া ডেস্ক

জয় দিয়েই এবার স্প্যানিশ লা লিগা মৌসুম শুরু করেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। তবে ঘরের মাঠের শুরুটা ভালো হয়নি লস বস্নাঙ্কোসদের। শনিবার রাতে নিজেদের মাঠে রিয়াল ভায়াদোলিদের সঙ্গে ১-১ গোলের ড্রয়ে পয়েন্ট হারিয়েছে জিনেদিন জিদানের দল। করিম বেনজেমার গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর খেলা শেষ হওয়ার দুই মিনিট আগে সমতা ফেরায় ভায়াদোলিদ। গত জানুয়ারিতে কর্দোবা থেকে যোগ দেয়া সার্জি গার্দিওলার গোলে রিয়ালকে জয়বঞ্চিত করে তারা। অপরদিকে অধিনায়ক জর্জিও কিয়েলিস্ননির একমাত্র গোলে পার্মার বিপক্ষে জিতে সিরি'আ শুরু করল জুভেন্টাস। নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত কোচ মাউরিসিও সারিকে ছাড়াই টানা নবম শিরোপার মিশনে মাঠে নামে চ্যাম্পিয়নরা।

সান্তিয়াগো বার্নাবু্যতে জয় রিয়ালের জন্য সময়ের ব্যাপার ছিল। ৮২ মিনিটে চমৎকার দক্ষতায় গোল করে তাদের এগিয়ে দেন করিম বেনজেমা। বক্সের প্রান্তে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ঘুরে দূরের পোস্ট দিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন ফরাসি ফরোয়ার্ড। এর আগে ৬৯ মিনিটে সার্বিয়ান স্ট্রাইকার লুকা জোভিচ রিয়ালকে এগিয়ে দিতে পারতেন। ইস্কোর বদলি হয়ে মাঠে নামার পরের মিনিটে তার হেড ক্রসবারে আঘাত করে।

গ্যারেথ বেল ও জেমস রদ্রিগেসও শুরুতে সুযোগ নষ্ট করেন। আর এই সুযোগগুলো নষ্ট হওয়ার মাশুল রিয়ালকে দিতে হয়েছে শেষ দিকে। লক্ষ্যে নেয়া দ্বিতীয় শটে আচমকা সমতা ফেরায় ভায়াদোলিদ। টনি ক্রুস বলের দখল হারালে একটি কাউন্টার অ্যাটাক থেকে থিবো কোর্তোয়ার পায়ের নিচ দিয়ে জালে বল জড়ান গার্দিওলা। ম্যাচের বাকি সময়ে আর কেউ ব্যবধান গড়তে না পারায় ১-১ গোলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়তে হয়েছে দুই দলকে। সেল্টা ভিগোর মাঠে ৩-১ গোলে জিতে লিগ শুরু করা রিয়ালের পয়েন্ট দুই ম্যাচ শেষে ৪।

এদিকে প্রতিপক্ষের মাঠে ম্যাচের শুরুর দিকে পরপর দুই মিনিটে দুই দলই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল। দ্বাদশ মিনিটে কাছ থেকে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর হেড লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ার পর পার্মার একটি প্রচেষ্টা রুখে দেন গোলরক্ষক ভয়চেখ স্ট্যাসনি। ২১তম মিনিটে জুভেন্টাসের একটি কর্নার পার্মার খেলোয়াড়রা ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হলে পেয়ে যান আলেক্স সান্দ্রো। তার জোরালো শটে জটলার মধ্য থেকে বলে পা লাগিয়ে জালে ঠেলে দেন অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার কিয়েলিস্ননি।

৩৪তম মিনিটে কোনাকুনি শটে বল জালে পাঠিয়ে উচ্ছ্বাসে মাতেন গত আসরের সেরা খেলোয়াড় রোনালদো। তবে ভিএআরের সাহায্য নিয়ে অফসাইডের বাঁশি বাজান রেফারি। ৬৫তম মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে রোনালদোর বুলেট গতির শট ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক লুইজি সেপে। আট মিনিট পর পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের আরেকটি ভালো প্রচেষ্টা রুখে দেন পার্মা গোলরক্ষক। বাকি সময়ে আর কেউ তেমন কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। ব্যবধান ধরে রেখে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে প্রতিযোগিতার সফলতম দলটি।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে