কৃষিপণ্যের রফতানি বেড়েছে মালয়েশিয়ায়

কৃষিপণ্যের রফতানি বেড়েছে মালয়েশিয়ায়

করোনা মহামারির কারণে বাণিজ্যে বড় ধরনের প্রভাব পড়লেও এ সময় বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়ায় কৃষিপণ্যের রফতানি বৃদ্ধি পেয়েছে। বুধবার (৭ এপ্রিল) মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

দূতাবাসের হিসাব অনুযায়ী, ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রথম ৮ মাসে (জুলাই-ফেব্রুয়ারি) মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের কৃষিপণ্যের রফতানি এর আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় শতকরা প্রায় ৫০ ভাগ বেড়ে ৬০ মিলিয়ন ডলার অতিক্রম করেছে। এছাড়া সাম্প্রতিক সময়ে মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের বাঁধাকপি রফতানি উল্লেখযোগ্য্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।

দূতাবাস জানায়, বেসরকারি খাতের পাশাপাশি সরকারি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশনও (বিএডিসি) মালয়েশিয়ায় আলু রফতানি করছে। বিএডিসি’র ইতিহাসে এটাই প্রথম আলু রফতানি। এই আলু বগুড়া, পঞ্চগড় ও সিরাজগঞ্জ থেকে সরবরাহ করা হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়,বিএডিসি’র ‘মানসম্মত বীজ আলু উৎপাদন, সংরক্ষণ ও কৃষক পর্যায়ে বিতরণ জোরদারকরণ প্রকল্পের’ আওতায় চুক্তিবদ্ধ চাষ বা কনট্রাক্ট ফার্মিংয়ের মাধ্যমে ডায়মন্ড জাতের উন্নতমানের এই আলু উৎপাদন করা হয়।

আমদানিকারকের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী, বিএডিসি এ পর্যন্ত চারটি কনটেইনারের মাধ্যমে মোট ১১১ মেট্রিক টন ডায়মন্ড জাতের আলু মালয়েশিয়ায় রফতানি করেছে। মালয়েশিয়ার আমদানিকারক কোম্পানি মাইডিন মালয়েশিয়া, চিনহুয়াত ট্রেডিং ও টেনবিলি গ্রুপ বাংলাদেশ থেকে এই আলু আমদানি করে।

মালয়েশিয়া প্রতি বছর প্রায় একশ’ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের আলু আমদানি করে থাকে। এরমধ্যে অর্ধেকের বেশি আলু আমদানি করা হয় চীন থেকে। মালয়েশিয়ায় আলু রফতানিকারক দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে— বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়া। বাংলাদেশ ২০১৯-২০ অর্থবছরে সেদেশে মোট ৯ দশমিক ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের আলু রফতানি করেছে।

যাযাদি/এসআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে