শরীরে দুর্গন্ধ থাকলে জেনে নিন সমাধান

শরীরে দুর্গন্ধ থাকলে জেনে নিন সমাধান

শরীরে দুর্গন্ধের কারণে অনেক সময় সমস্যার মাঝে পড়তে হয়। আর এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে কে না চায়। কেন এত দুর্গন্ধ হচ্ছে? আর এই সমস্যার সমাধানই বা কী, তা তুলে ধরা হলো।

কেন গায়ে দুর্গন্ধ হয়?

ত্বক বিশেষজ্ঞরা বলেন, শরীরে গন্ধ তৈরি হওয়ার কারণ বিশেষ করে বগলে গন্ধ হওয়া একটা শরীর বৃত্তীয় প্রক্রিয়া। এটি পিউবার্টির (প্রজনন চক্রে প্রবেশের সময়) সময় শুরু হয় আর চলে আজীবন। তবে অতিরিক্ত দুর্গন্ধ হওয়াটা নিঃসন্দেহে একটা সমস্যা। শরীরে দুর্গন্ধের জন্য দায়ী হচ্ছে বিও এনজাইম। এই বিও এনজাইম এক ধরনের বিশেষ ব্যাকটেরিয়ার মধ্যে থাকে। আর এই ব্যাকটেরিয়া বাসা বাঁধে আমাদের বাহুমূলে। সে কারণে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়।

নানা রকম পারফিউম বা ডিওডোরেন্ট ব্যবহার করার পরেও মেলে না মুক্তি। তাতে হয়তো সাময়িকভাবে গন্ধ দূর হয়। কিন্তু কয়েক ঘণ্টা পরেই আবার আগের রূপে ফিরে আসে।

তাহলে কী করলে গায়ে দুর্গন্ধ ফিরে আসবে না?

১. মনে রাখবেন, যে খাবার খাচ্ছেন সমস্যা তাতেই রয়েছে। চিকিৎসকেরা বলেন আপনি যা খাচ্ছেন সেখান থেকে যৌগ ভাঙে সরলীকরণ হয়। যার কারণে সেই পদ্ধতিতে সমস্যা থাকছে। খাবারে সালফারের পরিমাণ বেশি থাকলে অনেকের গায়ে দুর্গন্ধ হয়। রেড মিট, ডিম, পেঁয়াজ, ব্রকোলি, রসুন ইত্যাদি খাবারে সালফারের পরিমাণ বেশি থাকে। সব খাবারে আলাদা আলাদা রকম ব্যাকটেরিয়া থাকে। এসব খাবার খেলে নানা রকমের গন্ধ তৈরি হয়। ঘাম উৎপাদক সোয়েট গ্লান্ডের ব্যাকটেরিয়াল ব্রেক ডাউনের ফলে দুর্গন্ধ হয়। তা বলে কী খাবেন না এই ধরনের খাবার! একদমই তা নয়। এই খাবার খাওয়ার পর খুব বেশি করে জল খাওয়া উচিত।

২. বেশি অ্যালকোহল পান করছেন আপনি? যদি তাই হয় মনে রাখবেন, আপনার স্বেদ গ্রন্থি অ্যাসিডিক হয়ে যায়। এর ফলে গায়ে দুর্গন্ধ হয়। যাদের গায়ে দুর্গন্ধ বেশি হয় তারা এই বিষয়টি খেয়াল রাখবেন।

৩. মানসিকভাবে উদ্বিগ্ন থাকলে দেহের অ্যাপোক্রিন গ্রন্থি সক্রিয় হয়ে ওঠে। আপনার সিমপ্যাথেটিক নার্ভাস সিস্টেমকে আরও উত্তেজিত করে তোলে এই গ্রন্থি। স্ট্রেস বা উদ্বেগ কিন্তু দুর্গন্ধের কারণ না, দুর্গন্ধ বাড়িয়ে দেয় শুধু। সুতরাং মানসিক চাপ বেশি নেবেন না।

৪. বয়ঃসন্ধিতে অনেকেরই এই সমস্যা হয়। কিন্তু অনেক দিন পেরিয়ে গেলেও সমস্যা চলতে থাকলে বুঝতে হবে বড় কিছু শারীরিক সমস্যা রয়েছে। যাদের ডায়াবেটিস রয়েছে তাদের অনেক সময় গায়ে দুর্গন্ধ হয়। স্নায়ুর অসুখ অথবা হাইপারথায়রইয়েডিসম থাকলেও সমস্যা বাড়তে পারে।

৫. পেট ভরে খাওয়ার মানে কিন্তু পুষ্টির চাহিদা পূরণ নয়। বরং শরীরে পুষ্টির চাহিদা পূরণ করতে হলে প্রয়োজনীয় সব খাবার সঠিক পরিমাণ খাওয়া দরকার। শরীর পুষ্টিহীন হলে ঘামে দুর্গন্ধ হতে পারে। এছাড়া শরীরে ম্যাগনেসিয়ামের ঘাটতি হলে ঘাম থেকে বাজে গন্ধ হয়। তাই পুষ্টিপূর্ণ করার দিকে নজর দিন। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

যাযাদি/ এমডি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে