বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

মেসির রেকর্ডের রাতে পিএসজির ড্র

যাযাদি ডেস্ক
  ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৪২

গোল করেও প্যারিস সেন্ট জার্মেইকে (পিএসজি) জেতাতে পারলেন না লিওনেল মেসি। পর্তুগিজ ক্লাব বেনফিকার বিপক্ষে প্রথমে এগিয়ে গিয়েও শেষ পর্যন্ত ১-১ গোলে ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে ফরাসি জায়ান্টরা।

 

এই ম্যাচে গোল করে চ্যাম্পিয়নস লিগে আরেকটি রেকর্ড করলেন মেসি। চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ভিন্ন ৪০টি ক্লাবের বিপক্ষে গোল করলেন আর্জেন্টাইন তারকা। আগের রেকর্ডধারী ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ৩৮টি ভিন্ন প্রতিপক্ষের বিপক্ষে গোল করেন।

 

বুধবার লিসবনের এস্তাদিও দা লুজে শুরু থেকে বল দখলে পিএসজি এগিয়ে থাকলেও সুযোগ তৈরি করায় এগিয়ে ছিল বেনফিকা। ৮ মিনিটে গোলের জন্য প্রথম শট নেয় তারাই। রামোসের শট পা দিয়ে ঠেকিয়ে দেন পিএসজির ইতালিয়ান গোলরক্ষক ডোন্নারুম্মা। ১৬ মিনিটে মেসির ফ্রি-কিক বাধা পায় বেনফিকার দেয়ালে। 

 

তবে বেশিক্ষণ ঠেকিয়ে রাখা যায়নি পিএসজির আক্রমণকে। পিএসজির আক্রমণে থাকা মেসি, নেইমার ও এমবাপ্পের নৈপুণ্যে ২২ মিনিটে এগিয়ে যায় ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। এমবাপ্পেকে বল বাড়িয়ে সামনের দিকে ছুটে যান মেসি। নেইমারের পা ঘুরে ডি-বক্সের মাথায় বল পেয়ে বাঁ পায়ের দারুণ বাঁকানো শটে গোল করেন আর্জেন্টাইন জাদুকর। চলতি মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মেসির এটি দ্বিতীয় গোল। আর ইউরোপ সেরার মঞ্চে এটি মেসির ১২৭তম গোল।

 

তবে একের পর এক আক্রমণের সুফল বেনফিকা পায় ৪২ মিনিটে। এনসো ফের্নান্দেসের ক্রস গনসালো রামোস মাথা লাগাতে না পারলেও পিএসজির খেলোয়াড় ড্যানিল পেরেইরা গোল লাইন থেকে সেই বল সরাতে পারেননি। এই ডিফেন্ডারের গায়ে বল লেগে জড়ায় জালে। আত্মঘাতী এ গোলে ১-১ ড্র নিয়ে বিরতিতে যায় দুই দল।

 

বিরতির পর ‍উভয় দল বেশ কয়েকটি সুযোগ তৈরি করলেও কেউ কাজে লাগাতে পারেনি। ফলে ১-১ ব্যবধানে মাঠে ছাড়ে দুই দল।

যাযাদি/সাইফুল

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে