মশক নিধনে কঠোর অবস্থানে ডিএনসিসি

১০ দিনের অভিযান শুরু, প্রথম দিনে জরিমানা ৮ লাখ
মশক নিধনে কঠোর অবস্থানে ডিএনসিসি

ডেঙ্গুজ্বরের বাহক এডিস মশা নির্মূলে দশ দিনের বিশেষ অভিযান শুরু করেছে ঢাকা-উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। মঙ্গলবার গুলশানে বিচারপতি সাহাবুদ্দিন আহমদ পার্কসংলগ্ন এলাকায় ১০ দিনব্যাপী বিশেষ মশা নিধন অভিযান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সেলিম রেজা।

তিনি বলেন, 'যে কোনো ভবনে, নির্মাণাধীন বাড়িতে, সরকারি বেসরকারি বা আধাসরকারি যে কোনো প্রতিষ্ঠানে এমনকি সিটি কর্পোরেশনের কোনো অফিসে মশার লার্ভা পাওয়া গেলে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। লার্ভা পাওয়া গেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

তিনি আরও বলেন, 'ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের বছরব্যাপী নিয়মিত মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম চলমান থাকে। এই মৌসুমে মেয়র মহোদয়ের নির্দেশনায় আমরা ইতোমধ্যে হটস্পট চিহ্নিত করে অঞ্চল ও ওয়ার্ড পর্যায় নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছি।'

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'ডিনসিসির পুরো এলাকায় চারশত বর্গগজ আয়তনে বিভক্ত করে স্বেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে নয়শত পঞ্চাশ জন স্বেচ্ছাসেবক তালিকাবদ্ধ করে তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।'

এসময় তিনি অন্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে কয়েকটি নির্মাণাধীন ভবন পরিদর্শন করেন। উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে অভিযানে ভ্রাম্যমাণ

\হআদালত পরিচালনা করে ৩টি নির্মাণাধীন ভবনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায়

মোট ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। অঞ্চল-৩ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুলস্নাহ আল বাকী ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

এসময় আরও ছিলেন ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকতা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জোবায়দুর রহমান, স্থানীয় কাউন্সিলরসহ অন্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

এ ছাড়া অঞ্চল-১ এর আওতাধীন ১নং ওয়ার্ডের উত্তরা সেক্টর নং ৪, ৬, ৮ এবং ওয়ার্ড ১৭ এর নিকুঞ্জ-১,২ ও জামতলা, টানপাড়া এলাকায় আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জুলকার নায়ন মোবাইল কোর্ট পরিচালনার করেন। মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে বাসাবাড়ি ও নির্মাণাধীন ভবনে, ফাঁকা পস্নট, ড্রেন ঝোপঝাঁড়ে কিউলেক্স মশকবিরোধী অভিযান ও সমন্বিতভাবে এডিশবিরোধী অভিযানে ৫টি স্থানে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ৫টি মামলায় মোট ১,৫০,০০০/- টাকা জরিমানা আদায় করা হয় এবং ২টি নিয়মিত মামলা প্রক্রিয়াধীন।

অঞ্চল-৬ এর ৫১ নং ওয়ার্ডের উত্তরা সেক্টর-১১ আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিয়া আফরীন অভিযান করেন। অভিযান পরিচালনাকালে ২টি স্থানে মালিকবিহীন পরিত্যক্ত টায়ারে ও ২টি বাড়িতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যায়। লার্ভা প্রাপ্তি স্থানগুলোর লার্ভা ধ্বংস করে লার্ভা প্রাপ্ত ২ জন ভবন মালিককে ২টি মামলায় ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

উলেস্নখ্য, ১১ মে সকালে রাজধানীর উত্তরায় এডিস ও ডেঙ্গুবিরোধী নাগরিক সচেতনতামূলক পথসভায় অংশ নিয়ে ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম ডিএনসিসি এলাকায় ১০ দিনের মশা (ডেঙ্গু ও এডিস) নিধন কর্মসূচির ঘোষণা দেন। ১৭ থেকে ২৬ মে পর্যন্ত এই কর্মসূচি চলবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে