বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১
বরিশালে যুবলীগের মতবিনিময় সভা

দলের বিশ্বাসঘাতকদের ব্যাপারে আরও সতর্ক থাকতে হবে

বরিশাল অফিস
  ৩১ মে ২০২৩, ০০:০০

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, 'খোকন নেরনিয়াবাতের জনপ্রিয়তার কাছাকাছি বরিশাল মহানগরীতে আর কেউ নেই। তাকে কেন্দ্র করে আমরা ঘরে-বাইরে এক ও অভিন্ন রয়েছি। গাজীপুরে আমাদের জনগণ ভোট দিয়েছে। সেখানে আমরা ভোটে হারিনি, হেরেছি বেঈমান ও বিশ্বাসঘাতকদের কাছে। বরিশাল সিটি নির্বাচনের ক্ষেত্রে এসব বিশ্বাসঘাতকদের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। এদেশে দুর্বৃত্তদের কোনো জায়গা নেই। আমরা সম্ভাবনার জাতি। আগামী ১২ জুন বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে যেমনিভাবে নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে, তেমনি জাতীয় নির্বাচনেও আওয়ামী লীগকে জয়ী করে শেখ হাসিনাকে চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী করতে হবে।'

আগামী ১২ জুন বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আবুল খায়ের আব্দুলস্নাহকে (খোকন সেরনিয়াবাত) বিজয়ী করার লক্ষ্যে যুবলীগের বরিশাল মহানগর ও বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মঙ্গলবার বিকালে বরিশাল জেলা শিল্পকলা একাডেমি অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত এই মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্‌ পরশ বলেন, 'বাংলাদেশে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন চলমান রয়েছে। এদেশে রাজনীতির পরিবেশ বিরাজমান রয়েছে। যার একটি

উদাহরণ বিএনপি-জামায়াত রাজপথে মিছিল-মিটিং করে যাচ্ছে।'

বরিশাল সিটি নির্বাচনে নৌকার নির্বাচনী পরিচালনা কমিটিতে যাদের রাখা হয়নি, তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, 'মান-অভিমান ভুলে নৌকার বিজয়ের জন্য কাজ করুন। নৌকা ক্ষতিগ্রস্ত হলে আওয়ামী লীগ ক্ষতিগ্রস্ত হবে, ক্ষতিগ্রস্ত হবেন শেখ হাসিনা। ব্যক্তির সম্মান পরেও ফিরে পাবেন, নৌকার সম্মান পাবেন না।'

বরিশালে কোনো রাজনৈতিক মেরুকরণ নেই দাবি করে তিনি বলেন, 'এখানে মেরুকরণ একটাই। যাদের বিভক্ত করা হচ্ছে, তারা কিন্তু একই পরিবারের। রক্ত কখনো আলাদা হয় না, এটা সবার মনে রাখতে হবে। বরিশাল সিটি নির্বাচনে ঐক্যের সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করবে যুবলীগ। প্রায় ছয় মাস পরই জাতীয় নির্বাচন। বরিশালের সিটি নির্বাচন তাই খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই নির্বাচনে খোকন সেরনিয়াবাতের ব্যক্তিগত স্বচ্ছ চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যই তাকে বিজয়ী করবে।'

যাকে ঘিরে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন সেই আবুল খায়ের আব্দুলস্নাহ বলেন, '৭৫ পরবর্তী যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ভূমিকা অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। পরশের নেতৃত্বে যুবলীগ আরও শক্তিশালী হবে। শেখ হাসিনা সারা দেশে যে কর্মযজ্ঞ শুরু করেছেন, তা থেকে বরিশালবাসী বঞ্চিত। শেখ হাসিনা সেগুলো পূরণ করার জন্য আমাকে মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়ে বরিশালে পাঠিয়েছেন। নির্বাচিত হলে সেই কাজগুলো সর্বাত্মকভাবে সম্পন্ন করার চেষ্টা করব।'

তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, 'মনোনয়ন পাওয়ার পর ৪০ দিন কেটে গেলেও অনেকেরই সহযোগিতা এখনো পাইনি। আমাদের অভিভাবক জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ উপেক্ষা করলে সেটা হবে আত্মঘাতী। অথচ আমি অনেকের কাছ থেকে বিরুদ্ধাচরণ পাচ্ছি। আমরা গাজীপুর থেকে শিক্ষা নেওয়ার কথা বলি। কিন্তু আমরা কোনো কিছু থেকেই শিক্ষা নেই না।' তিনি আরও বলেন, 'মেয়র হতে পারলে বরিশাল সিটি করপোরেশনকে উন্মুক্ত করা হবে। আমি মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। আমার চাওয়া-পাওয়ার কিছু নেই। যে অঙ্গীকার আমি দিয়েছি, তা পালন করব। আমি মানুষের ভালোবাসা পেতে চাই। আমরা গড়ব নতুন বরিশাল।'

যুবলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য মো. গোলাম কবীর রাব্বানী চিনু, বাবু নির্মল চ্যাটার্জি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আবু আহমেদ নসিম পাভেল, সুভাষ চন্দ্র হাওলাদার, তাজউদ্দিন আহমেদ ও মো. জসিম উদ্দিন মাতুব্বর, যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ বদিউল আলম, বিশ্বাস মতিউর রহমান বাদশা ও ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নাঈম, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী মো. মাজহারুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, সহ-সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, মহিলা-বিষয়ক সম্পাদিকা মুক্তা আক্তার, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইসহাক আলী পান্না, বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট এ কে এম জাহাঙ্গীর, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সভাপতি রেজাউল করিম রেজা, সহ-সভাপতি জাফর ইকবাল, ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাকসুদুর রহমান, বরিশাল মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক নিজামুল ইসলাম নিজাম, যুগ্ম আহ্বায়ক মাহামুদুল হক খান মামুন ও শাহিন সিকদার, জেলা যুবলীগের সভাপতি মো. জাকির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ফজলুল করিম শাহিন, কেন্দ্রীয় যুবলীগ সদস্য অসীম দেওয়ান, বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জসিম উদ্দিন ও বিএম কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি মঈন তুষারসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে