শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০
walton
টাঙ্গাইলে সাংবাদিকদের কৃষিমন্ত্রী

নেতাকর্মীদের নৌকার বাইরে কাজ করার সুযোগ নেই

'আমরা সামনের দিনে কিভাবে দেশের অর্থনীতিকে পুনরুজ্জীবিত করব, আবার আগের ধারায় শক্তিশালী করব- সেই বিবেচনা রেখে নির্বাচনে যাচ্ছি'
স্টাফ রিপোর্টার, টাঙ্গাইল
  ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০০:০০

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ডক্টর মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, 'আমি মনে করি, আগামী নির্বাচনে দলের কোনো নেতাকর্মীর নৌকার বাইরে কাজ করার কোনো সুযোগ নেই। যারা দলের আদর্শ মেনে চলে তাদের অবশ্যই নৌকার পক্ষে কাজ করতে হবে। এই নৌকাকে আমরা বলে থাকি, হক-ভাসানীর নৌকা, এই নৌকা বঙ্গবন্ধুর নৌকা, এই নৌকা আওয়ামী লীগের নৌকা, এই নৌকা শেখ হাসিনার নৌকা। তাই নৌকার বাইরে কাজ করার সুযোগ নেই।'

বুধবার দুপুরে টাঙ্গাইল প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় যোগদানের আগে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, 'দল থেকে বহিষ্কার হওয়া একটি বিষয়। আরেকটি বিষয় হচ্ছে- দলের আদর্শের প্রতি অটুট থেকে, অবিচল থেকে, কমিটেড থেকে আদর্শের জন্য কাজ করা। নৌকা হচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রতীক, অসাম্প্রদায়িক সমাজ ব্যবস্থা, বাঙালি জাতীয়তাবাদ, গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্রের প্রতীক।'

তিনি বলেন, '১৯৪৯ সালে আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠা হওয়ার পর থেকে কোনো সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে আপস করেনি। আমরা চাই ন্যায় ও সমতার ভিত্তিতে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে। একটি সুন্দর সুষ্ঠু আদর্শ সমাজ প্রতিষ্ঠা করাই আওয়ামী লীগের লক্ষ্য।

ডক্টর মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, 'অর্থনীতির ক্ষেত্রে বৈষম্য ঘুচিয়ে মানুষের মধ্যে ধনী-গরিবের পার্থক্য কমিয়ে নিয়ে আসা- এটা আদর্শের কমিটমেন্ট। প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের স্বার্থে প্রতিযোগিতার জন্য হয়তো বলেছেন। কিন্তু তিনি বলেন নাই- নৌকা বাদ দিয়ে আওয়ামী লীগের একজন কর্মী বা অন্য প্রার্থীর জন্য কাজ করতে হবে। নৌকার বাইরে আওয়ামী লীগের যারা নির্বাচন করছে- আমার দৃষ্টিতে তারা অবশ্যই বিদ্রোহী প্রার্থী।'

কৃষিমন্ত্রী আরও বলেন, 'আমরা সামনের দিনে কিভাবে দেশের অর্থনীতিকে পুনরুজ্জীবিত করব, আবার আগের ধারায় শক্তিশালী করব- আমরা সেই বিবেচনা রেখে নির্বাচনে যাচ্ছি। জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় সিদ্ধান্ত নেব কীভাবে দল ও নৌকার প্রার্থীকে নির্বাচিত করা যায়। আমাদের সাফল্যের, অর্জনের ও উন্নয়নের বিভিন্ন দিক কিভাবে মানুষের মধ্যে তুলে ধরব তা নিয়ে আলোচনা করব- সেই কৌশল নির্ধারণ করব। আমাদের কি উদ্দেশে, কি অঙ্গীকার ও কি লক্ষ্য- তা নিয়ে আলোচনা করা হবে। দেশে কৃষি-শিক্ষা ও সেবা খাতের প্রতিটি ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এ উন্নয়নের ধারাবাহিকতা আমরা রক্ষা করতে চাই।'

এ সময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম (ভিপি জোয়াহের) এমপি, সংসদ সদস্য আহসানুল ইসলাম টিটু, সংসদ সদস্য খান আহমেদ শুভ, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহজাহান আনছারী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে