বিশ্বে এক দিনে শনাক্ত প্রায় পৌনে ৪ লাখ

২৪ ঘণ্টায় মৃতু্য হাজারের বেশি, শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র
বিশ্বে এক দিনে শনাক্ত প্রায় পৌনে ৪ লাখ

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক দিনে ১ হাজার ১৪ জনের মৃতু্য হয়েছে। এ নিয়ে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৬৫ লাখ ৩৫ হাজার ৯৯২ জনে। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৬৫ হাজার ৭৭৩ জন। এ পর্যন্ত আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬১ কোটি ৮৯ লাখ ৭৭ হাজার ৬৮৪ জনে।

শুক্রবার সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃতু্য ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এসব তথ্য পাওয়া যায়।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে জাপানে। এই সময়ে দেশটিতে নতুন করে আক্রান্ত

হয়েছেন ৬১ হাজার ৪৭৮ জন এবং মারা গেছেন ১২০ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৮ লাখ ৪০ হাজার ৭৮৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৪৪ হাজার ৭১ জন মারা গেছেন।

অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮ হাজার ৫৯৮ জন এবং মারা গেছেন ২২২ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৯ কোটি ৭৭ লাখ ৯৫ হাজার ৭২৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১০ লাখ ৮০ হাজার ৮৩৬ জন মারা গেছেন।

রাশিয়ায় ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত হয়েছেন ৫৩ হাজার ৪৫৭ জন এবং মারা গেছেন ১০৬ জন। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২ কোটি ৬ লাখ ৪১ হাজার ৫৫৯ জন এবং মৃতু্য হয়েছে ৩ লাখ ৮৬ হাজার ৪৪৭ জনের। একই সময়ে দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩২ হাজার ৯৭২ জন এবং মারা গেছেন ৫৯ জন।

ফ্রান্সে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮ হাজার ৪৬৪ জন এবং মারা গেছেন ৩০ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩ কোটি ৫০ লাখ ৫০ হাজার ১৩৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৫৪ হাজার ৮৫৪ জন মারা গেছেন। একই সময়ে ফিলিপাইনে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৭০২ জন এবং মারা গেছেন ৩৮ জন।

ব্রাজিলে আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ ও মৃতু্যর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৯ জন এবং নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৭ হাজার ৭৮৪ জন। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩ কোটি ৪৬ লাখ ৫৯ হাজার ৫২৬ জন এবং মৃতু্য হয়েছে ৬ লাখ ৮৫ হাজার ৭২৫ জনের।

ইতালিতে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২২ হাজার ৫২৩ জন এবং মারা গেছেন ৬০ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ২২ লাখ ৪১ হাজার ৩৬৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৭৬ হাজার ৭৭৫ জন মারা গেছেন। একই সময়ে তাইওয়ানে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫৯ জন এবং নতুন করে ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ৪২ হাজার ৪৭০ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডবিস্নউএইচও) করোনাকে 'বৈশ্বিক মহামারি' হিসেবে ঘোষণা করে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে