বাবুগঞ্জে জেলেদের চাল ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ

বাবুগঞ্জে জেলেদের চাল ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ

জাটকা মৌসুমে বরিশালে জেলেদের জন্য বরাদ্দকৃত কার্ড প্রতি দুই মাসে ৮০ কেজি চালের বদলে ৬০ কেজি করে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার দেহেরগতি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে স্থানীয় জেলেরা এ অভিযোগ তুলেছেন।

জানা গেছে, ফেব্রুয়ারি ও মার্চ মাসে নদীতে জাটকা মাছ ধরা নিষিদ্ধ থাকায় জেলেরা বেকার হয়ে পড়েছেন। তাই এই দুই মাসে জেলেদের জন্য ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে জনপ্রতি ৮০ কেজি চাল বরাদ্দ দেয় সরকার। যা গত ২৩ মার্চের মধ্যে বিতরণ করার কথা থাকলেও বাবুগঞ্জ উপজেলার দেহেরগতি ইউনিয়ন পরিষদ ব্যর্থ হয়েছে। ২০ এপ্রিল থেকে বিতরণ শুরু করলেও ৮০ কেজির স্থলে ৬০ কেজি চাল দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন জেলেরা। এমনকি অনেক কার্ডধারী জেলেরা অভিযোগ করে বলেন, চাল বিতরণে স্বজনপ্রীতির কারণে অনেক প্রকৃত জেলে চাল সহায়তা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। চাল সহায়তা থেকে বঞ্চিত জেলে ফারুখ খলিফা, কবির হাওলাদার, নিজাম উদ্দিন, বেল্লাল হোসেন, আল-আমিন, মাসুমসহ কয়েকজন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ করে বলেন, আমরা প্রকৃত কার্ডধারী জেলে হওয়া সত্ত্বেও দেহেরগতি ইউপি চেয়ারম্যান মশিউর রহমান স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে আমাদের বাদ দিয়ে মৎস্যজীবী নয় এমন লোকদের চাল দিচ্ছেন। বুধবার সরেজমিনে দেখা গেছে, দেহেরগতি ইউনিয়নের ১ও ২ নং ওয়ার্ডের জেলেদের ৮০ কেজির স্থলে ৩০ কেজির ২টি চালের বস্তা দিচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে।

এ ব্যাপারে দেহেরগতি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মশিউর রহমান বলেছেন, জেলেদের সঠিকভাবেই চাল বিতরণ করা হয়েছে। যারা চাল পাননি তারা মিথ্যা অভিযোগ ছড়াচ্ছেন। উপজেলা মৎস্য অফিসার সাইদুজ্জামান বলেন, চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে