সোমবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯

গাইবান্ধায় হানাদারমুক্ত দিবসে মুক্তিযুদ্ধের স্মারক প্রদর্শনী

গাইবান্ধা প্রতিনিধি
  ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২০:২৬

হানাদারমুক্ত দিবস উপলক্ষে গাইবান্ধায় মুক্তিযুদ্ধের স্মারক প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী জেলা সংসদের আয়োজনে দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীটি অনুষ্ঠিত হয় গাইবান্ধা শহিদ মিনার চত্বরে।

সকাল সাড়ে ১১টায় শহিদ পরিবারের সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাহিত্যিক অধ্যাপক মাজহার-উল-মান্নান, কবি সরোজ দেব, সংগীতজ্ঞ মশিউর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহমুদুল হক শাহজাদা, গৌতম চন্দ্র মোদক, গণ উন্নয়ন কেন্দ্রের নির্বাহী প্রধান এম. আবদুস সালাম, পরিবেশ আন্দোলনের আহ্বায়ক ওয়াজিউর রহমান রাফেল, তবলাশিল্পী প্রমতোষ সাহা, উদীচী জেলা সভাপতি অধ্যাপক জহুরুল কাইয়ুম প্রমুখ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রকৃত ইতিহাস উন্মোচন এবং মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি রক্ষায় স্মরণীয় অবদানের জন্য কুড়িগ্রামের উত্তরবঙ্গ জাদুঘরের প্রতিষ্ঠাতা, একুশে পদকপ্রাপ্ত এ্যাডভোকেট এস.এম আব্রাহাম লিংকনকে উদীচী গাইবান্ধা ও গণ উন্নয়ন কেন্দ্র সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করে। এসময় শাহ্ আব্দুল হামিদ স্টেডিয়াম সংলগ্ন গাইবান্ধা বধ্যভূমির মাটি উত্তরবঙ্গ জাদুঘরে সংরক্ষণের জন্য আব্রাহাম লিংকনের হাতে তুলে দেয়া হয়।

প্রদর্শনীতে গাইবান্ধা, রংপুর, কুড়িগ্রামসহ উত্তরবঙ্গের মুক্তিযুদ্ধকালীন বিভিন্ন প্রেক্ষাপটের দুই শতাধিক ছবি ও স্মারক প্রদর্শিত হয়।

দিনব্যাপী প্রদর্শনীতে গাইবান্ধার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সুশান্ত কুমার মাহাতো, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারী, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, সাংবাদিক, বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবী সংগঠন, নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি ও রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন স্তরের মানুষ দর্শনার্থী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

সন্ধ্যা ৬টায় শহিদ মিনার চত্বরে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ‘ মুক্তির বারতা পেয়েছি সেইদিন’ আয়োজন করে উদীচী গাইবান্ধা।

উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের এই দিন সকালবেলা কোম্পানী কমান্ডার মাহবুব এলাহী রঞ্জু (বীর প্রতীক) এর নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধাদের একটি দল ফুলছড়ি উপজেলার ফজলুপুর ইউনিয়নের কালাসোনার চর থেকে বালাসীঘাট হয়ে গাইবান্ধা শহরে প্রবেশ করে। বিজয়ী বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আগমনের সংবাদ পেয়ে আগের রাতেই গাইবান্ধা শহরের স্টেডিয়ামে অবস্থিত পাক হানাদার বাহিনীর সদস্যরা তল্পিতল্পা গুটিয়ে রংপুর ক্যান্টনমেন্টের উদ্দেশ্যে পালিয়ে যায়।

যাযাদি/মনিরুল

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে