শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০
walton

পদ্মাসেতু এলাকায় বাস থেকে নামিয়ে ২১ লক্ষ টাকার বৈদেশিক মুদ্রা ছিনতাই

জাজিরা (শরীয়তপুর) প্রতিনিধি
  ২৫ মে ২০২৩, ১৮:৫৭

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার পদ্মাসেতু দক্ষিণ প্রান্তের থানা এলাকার নাওডোবা চত্বরে সোহাগ পরিবহনের একটি বাস থেকে যশোর বেনাপোল থেকে ঢাকাগামী দুই যাত্রীকে নামিয়ে প্রায় ২১ লক্ষ টাকার বৈদেশিক মুদ্রা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। গত রবিবার (২১-মে) দুপুরে মো: শাহিন আলম শেখ এবং সেকান্দার মাদবর নামের ঢাকাগামী যাত্রীদের সাথে উক্ত ছিনতাইয়ের ঘটনাটি ঘটে। এই ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত ভুক্তভোগীরা তাদের সাথে থাকা বৈদেশিক মুদ্রা হারিয়ে পরেছেন বিপাকে।

বিষয়টি নিয়ে গত ২৩ তারিখ পদ্মাসেতু দক্ষিণ থানায় ৯ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত ৬/৭ জনের বিরুদ্ধে ৩/২৭ নম্বরের একটি মামলা দায়ের করা হয় এবং একই দিন মামলার ৮ নং আসামি আ: রশিদ চোকদার(৬০) নামে একজনকে পদ্মাসেতু দক্ষিণ থানা পুলিশ গ্রেফতার করে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করে। তবে বাকি আসামিদের এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে পদ্মাসেতু দক্ষিণ থানা পুলিশ। অভিযুক্ত সকলের বাড়িই পদ্মাসেতু দক্ষিণ থানা এলাকার নাওডোবা চত্বরের আশেপাশে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, বাদী মো: শাহিন আলম শেখ এবং সেকান্দার মাদবর ইন্ডিয়া থেকে দেশে ফিরে যশোরের বেনাপোল থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে সোহাগ পরিবহনের গাড়িতে ওঠে। তখন মামলার ১ নং আসামি মো: শহিদুল ইসলাম(২৮) তাদের সাথেই বাসে করে আসে। নাওডোবা এলাকায় আসলে শহিদুল তার সহযোগীদের নিয়ে বাস থেকে মো: শাহিন আলম শেখ এবং সেকান্দার মাদবরকে জোরপূর্বক নামিয়ে তাদের কাছে থাকা বৈদেশিক মুদ্রা এবং মোবাইলফোনসহ কিছু মূল্যবান সামগ্রী ছিনিয়ে নেয়। যার মোট মূল্য প্রায় ২১ লক্ষ ১৬ হাজার টাকা।

এ বিষয়ে মামলার বাদী ভুক্তভোগী মো: শাহিন আলম শেখ জানান, মো: শহিদুল ইসলাম আমাদের পূর্ব পরিচিত ছিলো, তবে আমাদের সে এভাবে ফলো করছে এটা আমরা বুঝতে পারিনি। নাওডোবা আসা মাত্রই বাস থেকে নামার কথা বলে বাস থামিয়েই আমাদের জোরপূর্বক বাস থেকে নামিয়ে সাদ্দামসহ মামলায় উল্লেখিত তার অন্যান্য সহযোগীদের নিয়ে আমাদের মারধর করে এবং আমাদের সাথে থাকা সকল টাকা-পয়সা, বৈদেশিক মুদ্রা, দামী কয়েকটি মোবাইলফোন এবং মূল্যবান কিছু কসমেটিকস সামগ্রী ছিনিয়ে নেয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পদ্মাসেতু দক্ষিণ থানার পুলিশ-পরিদর্শক সুরুজ উদ্দিন আহমেদ জানান, ইন্ডিয়া থেকে ফেরার পথে মো: শাহিন আলম শেখ এবং সেকান্দার মাদবরকে এখানকার স্থানীয় কিছু লোকজন বাস থেকে নামিয়ে তাদের সাথে থাকা টাকা-পয়সাসহ মূল্যবান জিনিসপিত্র ছিনতাই করেছে শুনে সাথে-সাথেই আমরা ঘটনাস্থলে গিয়েছি। এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে এবং একজনকে আমরা ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করে আদালতে পাঠিয়েছি।

পদ্মাসেতু দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, আমরা ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে এজাহার পাওয়ার পরে একটি মামলা নিয়ে একজন আসামিকে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করেছি এবং বাকিদেরকেও গ্রেফতার করার সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। এছাড়া ছিনতাই হওয়া বৈদেশিক মুদ্রাসহ সকল মূল্যবান সামগ্রীও উদ্ধার করার সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। আশা করি খুব শিঘ্রই আমরা বাকি আসামিদের গ্রেফতার করে ছিনতাই হওয়া সকল মালামাল উদ্ধার করতে পারবো।

যাযাদি/এসএস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে