বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

চুয়াডাঙ্গায় তীব্র তাপদহে ৩ জনের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার , চুয়াডাঙ্গা
  ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:০৫
ছবি-যায়যায়দিন

চুয়াডাঙ্গায় তীব তাপদাহে দু'দিনে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। হিট স্ট্রক ও ডায়রিয়া রোগে এক নারীসহ দুজন মারা গেছেন। অসুষ্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছে অনেকেই।

রবিবার (২১ এপ্রিল) দুপুরে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মুত্যু হয় নির্মাণ শ্রমিক সিদ্দীক আলীর। দামুড়হুদা উপজেলার পুরাতন বাস্তপুর গ্রামের সিদ্দীক আলী (৪৫) দু'দিন ধরে চুয়াডাঙ্গা শহরে রড মিস্ত্রীর কাজ করছিল। শুক্রবার সে তীব্র গরমে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে প্রচন্ড অসুস্থ হয়ে পড়ে। এরপর শনিবার রাতে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে রবিবার দুপুর ১ টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

সিদ্দীক আলীর ভাই সিরাজ মাস্টার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে শ‌নিবার ৪২ দশ‌মিক ৩ ডিগ্রী তাপদা‌হের দিন চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপ‌জেলা হিট‌স্ট্রো‌কে এক যুবক ও এক নারীর মৃত্যু হ‌য়ে‌ছে।

শনিবার বি‌কেল ৩ টার দিকে তীব্র তাপমাত্রায় হিটস্ট্রোক দামুড়জুদা উপ‌জেলা সদ‌রে ম‌র্জিনা খাতুন (৬০) নামে এক নারী মারা যায়।

‌নিহত ম‌র্জিনা খাতুন উপ‌জেলা সদ‌রের ইউ‌নিয়ন প‌রিষদ পাড়ার আ‌জিম উদ্দী‌নের স্ত্রী।

নিহত ম‌র্জিনা খাতু‌নের ছে‌লে কামরুল ইসলাম কামু জানান, বেলা ৩ টার দি‌কে অ‌তি‌রিক্ত তাপে আমার মা (ম‌র্জিনা খাতুন) হটাৎ অসুস্থ হ‌য়ে প‌ড়ে। এসময় আমরা মা‌কে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার জন্য অটো ভ্যা‌নে উঠা‌নোর সা‌থে সা‌থে মা মারা যায়। ‌

এর আ‌গে শনিবার সকাল ৭ টার দিকে মাঠে কৃষিকাজ করতে গিয়ে প্রচন্ড গরমে স্ট্রক করে সীমান্তবর্তী ঠাকুরপুর গ্রামের জাকির হোসেন (৩৬)। হাসপাতালে নেয়ার পথে সকাল ৮ টার দি‌কে তিনি মারা যান।

গত কয়েক দিন ধরে চুয়াডাঙ্গার উপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে মাঝারি থেকে তীব্র ও অতি তীব্র তাপদাহ। এই তাপদাহে জেলায় হিট এলাট জারি করে মাইকিং করা হচ্ছে এক সপ্তাহ থেকে।

চুয়াডাঙ্গা প্রথম শ্রেণীর আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ইনচার্জ জামিনুর রহমান জানান, রবিবার (২১) এ জেলার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪২.২ ডিগ্রী। গত এক সপ্তাহ ধরে জেলায় দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা বিরাজ করছে। তীব্র চলছে৷ হিট এলার্ট জারী আছে। এর মধ্যে তাপমাত্রার পারদ সর্বোচ্চ ৪২. ৩ উঠে গেছে। এপ্রিল মাস জুড়েই এ অবস্থা থাকবে। তাপমাত্রা আরো বাড়বো।

চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাৎ হাসান মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বনেন, আজ পর্যন্ত এ জেলায় হিট স্ট্রক ও ডায়রিয়ায় ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে । তিনি সবাইকে এই মুহুর্তে স্বাস্থ্য বিভাগের দেয়া বার্তাগুলো মেনে চলার আহবান জানান। চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক ড. কিসিঞ্জার চাকমা এ প্রতিবেদককে বলেন, 'আজ রবিবার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার একটি মিটিং করেছি। সবাইকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। যেহেতু হিট স্ট্রক হচ্ছে। সেহেতু সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। সেই সাথে সবার যে অবলম্বন বিশেষ করে কৃষি, গবাদি পশু- পাখির প্রতি যত্নশীল হতে হবে এ মুহুর্তে। তিনি আরো বলেন, আবহাওয়ার অধিদপ্তর থেকে যে তথ্য ও নির্দেশনা দেয়া হচ্ছে সে অনুযায়ী মাইকিং করা হচ্ছে।'

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে