বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

চাচাতো ভাইকে ছোঁড়া গুলিতে বন্ধু নিহত

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি
  ২২ মে ২০২৪, ১০:০৯
ফরিদ আহমেদ

কিশোর গ্যাং নিয়ে মহড়ার পর আপন চাচাতো ভাইকে লক্ষ্য করে ছোঁড়া গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন সঙ্গে থাকা অপর ব্যক্তি। গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার টেপিরবাড়ি গ্রামে মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত ফরিদ আহমেদ (২৫) পাশ্ববর্তী উজিলাব গ্রামের মোস্তফা কামালের ছেলে। গুলিতে তিনি গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের স্বজনেরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতের দিকে টেপিরবাড়ি গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে মো. শাকিব(২৪), মো. মারুফ(১৭) ও মো. মাহফুজ(১৯) ২০ থেকে ২৫ জন সশস্ত্র সঙ্গী নিয়ে তাদের আপন চাচাতো ভাই একই গ্ৰামের মোঃ মনসুরের ছেলে মোঃ ইমরানের (২২) উপর হামলা চালাতে আসেন। এ সময় তারা নিজেদের মধ্যে কয়েক দফায় সংঘর্ষে জড়ায়। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে শাকিব তার নিজের কাছে থাকা পিস্তল দিয়ে ইমরানকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। গুলিটি ইমরানের সঙ্গে থাকা তার বন্ধু মো. ফরিদ আহমেদের শরীরে লাগে। এতে গুরুতর জখম হন তিনি। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাঁকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যাওয়ার পর সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: আজরিনা আফরিন বলেন," হাসপাতালে মৃত অবস্থায় আনা হয়েছিল ওই যুবককে। আমরা পুলিশকে খবর দিয়েছি। নিহতের শরীরে ক্ষতচিহৃ রয়েছে"।

নিহতের স্বজন মোঃ মোক্তার হোসেন বলেন, চাচাতো ভাইদের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ কয়েক বছর ধরে চলমান। তবে মঙ্গলবার উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে ভোট কেন্দ্রে ইমরানের সঙ্গে শাকিবের বাকবিতন্ডা হয়। ক্ষুব্ধ হয়ে শাকিব তার ভাই ও অন্যান্য সঙ্গীদের নিয়ে ইমরানের উপর হামলা চালাতে এসেছিলেন।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকবর আলী খান যায়যায়দিনকে বলেন," খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গেই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনার তদন্তের কাজ চলছে। দ্রুত সময়ের মধ্যেই প্রকৃত অপরাধীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসবো। মামলা চলমান "।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে