logo
বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  মহাদেবপুর (নওগঁা) সংবাদদাতা   ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

মহাদেবপুরে আতঙ্কের নাম মালবাহী ট্রাক্টর

নওগঁার মহাদেবপুরে অনুমোদনহীন শত শত ট্রাক্টরের বেপরোয়া চলাচলে অতিষ্ঠ জনসাধারণ। বিশাল চাকার ট্রাক্টরগুলোর নিয়মবহিভ‚র্ত চলাচলের কারণে যেকোনো সময় কেড়ে নিতে পারে মানুষের প্রাণ। এর চাকায় পিষ্ট হয়ে অসংখ্য মানুষ নিহত ও আহত হয়েছে। এসব ট্রাক্টরের বেপরোয়া গতির কারণে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুঘর্টনা। কাউকে আবার সারাজীবনের মতো বরণ করতে হচ্ছে পঙ্গুত্ব।

অদক্ষ চালকদের বেপরোয়া গতির ট্রাক্টর আইনের তোয়াক্কা না করে প্রতিদিন অবাধে বিচরণ করছে। কিন্তু চোখের সামনে অবৈধ এই যানের অবাধ চলাচল দেখেও অদৃশ্য কারণে কাযর্কর কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করছে না সংশ্লিষ্ট কতৃর্পক্ষ। ফলে প্রশাসনের ভ‚মিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

বন্যা নিয়ন্ত্রণ বঁাধ, উপজেলা সদর ও গ্রামীণ সড়কগুলোতে ট্রাক্টরের বেপরোয়া চলাচলে আতঙ্কে রয়েছে পথচারীসহ স্থানীয় বাসিন্দারা। কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে নিমির্ত প্রত্যন্ত অঞ্চলের গ্রামীণ সড়কগুলো ক্ষতবিক্ষত হয়ে খানা-খন্দে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সবর্ত্র পরিবেশ দূষণ হচ্ছে, রাস্তার পাশের বাড়িঘর হচ্ছে ধুলোয় ধূসর, ব্যাহত হচ্ছে জীবনযাত্রা।

আত্রাই নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বঁাধ দিয়ে বছরজুড়েই বালু ও মাটি বহন করে বঁাধের ক্ষতিসাধন করছে স্থানীয় বালু ব্যবসায়ী এবং একশ্রেণির ইটভাটা মালিক। বঁাধের আশপাশের বাসিন্দাদের অনেকটা জিম্মি করে বালু ব্যবসায়ী ও ইটভাটা মালিকরা অবাধে পরিবহনের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেÑ এমনি অভিযোগ করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এদিকে অনভিজ্ঞ চালক লক্কড় ঝক্কড় যান দিয়ে বালু ও মাটি বহন করতে গিয়ে প্রতিনিয়তই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সাধারণ মানুষ। বিশেষ করে ধুলাবালির কারণে সড়কে হেঁটে চলাচলকারী জনসাধারণ এবং স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীদের স্বাস্থ্যঝুঁকিসহ নানা প্রকার সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে।

এদিকে চাষাবাদের জন্য আমদানিকৃত ট্রাক্টরগুলো পরিবহনে রূপান্তরের পর থেকেই গ্রামীণ জনপদে সবর্নাশ ঘটাতে শুরু করে। যদিও তা মাত্রায় ছিল সহনশীল। কিন্তু সময়ের ব্যবধানে চাহিদা মেটাতে ট্রাকের চেয়ে ট্রাক্টরের ভাড়া তুলনামূলক কম হওয়ায় এর সংখ্যা বহুগুণে বৃদ্ধি পেয়েছে। জনসাধারণের কাছে এগুলো এখন আতঙ্কের নাম।

এ ব্যাপারে উপজেলা নিবার্হী কমর্কতার্ মো. মোবারক হোসেন জানান, অবৈধ যানবাহনের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। দ্রæত এই যানবাহনটির বিরুদ্ধে আরও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে