​​​​​​​দেলদুয়ারে উচ্চ মূল্যের সবজি চাষে স্বাবলম্বী  শাকিল

​​​​​​​দেলদুয়ারে উচ্চ মূল্যের সবজি চাষে স্বাবলম্বী  শাকিল

টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার আটিয়া ইউনিয়নের গোমজানি গ্রামের তরুণ উদ্যোক্তা কৃষিবিদ শাকিল আহমেদ শুভ আধুনিক পদ্ধতিতে বেশ কয়েকটি উচ্চ মূল্যের সবজি চাষে স্বাবলম্বী হয়েছেন শিক্ষিত হলেই শুধু চাকুরির পেছনে ছুটতে হয় এমন ধারনা বদলে দিয়েছেন তরুণ উদ্যোক্তা শাকিল আহমেদ এলাকায় আধুনিক পদ্ধতিতে উচ্চমূল্যের বিদেশী জাতসহ প্রায় ১০ রকম সবজি চাষ করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন শাকিলের সবজি চাষ দেখে স্থানীয় অনেক কৃষকই অনুপ্রাণিত হচ্ছে গোমজানি সহ আশপাশের গ্রামের অনেক কৃষক বেকার যুবকরা শাকিলের পরামর্শ নিয়ে আধুনিক পদ্ধতি সবজি ফলমূল চাষে ঝুঁকছে

জানা গেছে, ২০২০ সালে নোয়াখালী বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃষি বিজ্ঞান বিষয়ে বিএসসি পরীক্ষা শেষ করে শাকিল আহামেদ বেশ কয়েকটি দপ্তরে চাকুরি পরীক্ষা দেন এতে ১০/১২ হাজার টাকা বেতনে মার্কেটিং চাকুরির জন্য তাকে ডাকা হয় অথচ মাত্র ১০/১২ হাজার টাকা দিয়ে শহরে থাকাটাই কষ্টকর ব্যাপার মনে করেন সে ্জীবিকার ব্যয়বারের কথা চিন্তা করে গ্রামে ছুটে আসে শাকিল গ্রামে ফিরে বাবার কাছ থেকে কিছু টাকা নিয়ে আধুনিক চাষাবাদ পদ্ধতি অনুসরণ করে বিদেশী জাতের এক প্রকার সবজি স্কোয়াশ চাষ করেন প্রথম বছর স্কোয়াশ বিক্রি করে প্রায় দ্বিগুণেরও বেশি লাভ করেন তিনি ফলে কৃষি চাষাাবাদে উৎসাহিত হয়ে এবছর প্রায় ১০ রকম সবজি ফল চাষ করেছেন সেখান থেকে ১০ লাখ টাকা বিক্রি করে লাখ টাকা লাভ হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে

তার চাষকৃত উল্লেখযোগ্য সবজি ফল হলো রেড ক্যাবেজ, ব্রোকলি,রক মেলন, তরমুজ, পাতাকপি, লাউ লাল শাক ইত্যাদি

উপজেলা কৃষিবিভাগ সূত্রে জানা গেছে, গোমজানি গ্রামের তরুণ উদ্যাক্তা শাকিল আহমেদ শুভ উচ্চমূল্যের প্রায় ১০ প্রকার সবজি ফল চাষ করেছে এতে ওই এলাকা সহ আশপাশের গ্রামের কৃষকরাও অনুপ্রাণিত হচ্ছে চলতি মৌসুমে শাকিল আহমেদ ৪২ শতাংশ জমিতে স্কোয়াশ, ৪০ শতাংশ জমিতে ক্যাপসিকাম, ৫০ শতাংশ জমিতে শসা, ১২৫ শতাংশ জমিতে সমন্বিত মিশ্র ফল সবজি চাষ চাষ করছেন সমন্বিত সবজি চাষের একই জমিতে রয়েছে পেঁপে,টমেটো, শসা, রেড ক্যাবেজ, ব্রোকলি,রক মেলন তরমুজ, পাতাকপি, লাউ লাল শাক একটি জমিকে পুরোপুরি ব্যবহার করতে সমন্বিত চাষ শুরু করেন তিনি মোট ২৫৭ শতাংশ জমিতে বিনিয়োগ করেছেন প্রায় লাখ টাকা ১০ লাখ টাকা বিক্রির টার্গেট নিয়ে কাজ করছে বর্তমানে তার উৎপাদিত সবজি ফল স্থানীয়দের চাহিদা মিটিয়ে রাজধানী ঢাকা সহ বেশ কয়েকটি জেলায় বিক্রি হচ্ছে

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, কৃষিবিদ তরুণ উদ্যোক্তা শাকিল আহমেদ শুভ তার জমিতে প্রায় ১০ প্রকার উচ্চমূল্যের বিদেশী সবজিসহ ফল চাষ করেছেন এয়াড়া আধুনিক পদ্ধতি অনুসরণ করে বিষ প্রয়োগ ব্যতিত পোকা দমন, ক্ষতিকারক সার ব্যবহার না করে কম্পোস্ট সারের ব্যবহার, পোকা পালন করে মুরগি মাছের প্রাকৃতিক খাদ্য তৈরি, মালচিং পদ্ধতিতে চাষাবাদে পানি সারের অপব্যবহার রোধ করা, অনলাইনে কৃষকদের ঐক্যবদ্ধ করে পরামর্শের মাধ্যমে আধুনিকরণ করে কৃষিকাজে বিশেষ ভূমিকা রেখে অল্প দিনেই প্রশংসিত হয়েছেন

কৃষিবিদ তরুণ উদ্যোক্তা শাকিল আহম্মেদ জানান, বিএসসি পরীক্ষা শেষ করে ২০২০ সালে করোনা ভাইরাস (কোভিডে-১৯) এর প্রভাবে আর্থিক সংকটে যখন সময় কাটছিল ওই সংকট সময়ে মানুষের ধারে ধারে ঘুরে একটি ভাল চাকুরির খুঁজে না পেয়ে দিশেহারা হয়ে পরেন তিনি সেই সময়ে মাথায় আসে গ্রামে গিয়ে চাষাবাদ করবে যেই ভাবনা সেই কাজ গ্রামে ফিরে বাবার কাছ থেকে স্বল্প পরিমানে টাকা নিয়ে ৪০ শতাংশ জমিতে শুরু করেন স্কোয়াশ চাষ এতে দ্বিগুনেরও বেশি লাভ হয় প্রথমেই লাভের মুখ দেখে আধুনিক পদ্ধতিতে সবজি চাষে ঝুঁকেন তিনি এতে দেলদুয়ার উপজেলা কৃষি বিভাগ ঔষধ কোম্পানির কর্মীরাও পরামর্শ দিয়ে সহযোগিতা করেন বর্তমানে শাকিলের কাছ বেশ কিছু কৃষক বেকার যুবকরা পরামর্শ নিয়ে সবজি চাষে লাভবান হয়েছে জানান তিনি

এছাড়া ফার্মনেট এশিয়া নামের একটি অনলাইন ভিত্তিক কোম্পানী চালু করেন তিনি যার কাজ কৃষক- ভোক্তা বিনিয়োগকারীদের আধুনিক উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে সংযুক্ত করা হয় ফলে কৃষক ভোক্তা উভয় শ্রেণীর মানুষ উপকৃত হবে

দেলদুয়ার উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ শোয়েব মাহমুদ বলেন, গোমজানি গ্রামের তরুণ উদ্যোক্তা কৃষিবিদ শাকিল আহমেদ শুভ উচ্চমূল্যের প্রায় ১০ প্রকার সবজি ফল চাষ করে সফল হয়েছে তরুণ উদ্যাক্তা শাকিল আহমেদ শুভকে দেলদুয়ার উপজেলা কৃষি বিভাগ থেকে সব ধরনের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে